BREAKING NEWS

৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাগজের কাপে দেদার চা খাচ্ছেন? হতে পারে মারাত্মক ক্ষতি, সতর্কবার্তা খড়গপুর IIT’র

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 9, 2020 12:12 pm|    Updated: November 9, 2020 12:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাগজের কাপে রোজ দেদার চা (Tea) খাচ্ছেন? তাহলে অবিলম্বে সাবধান হোন। খড়গপুর আইআইটির (IIT Kharagpur) সাম্প্রতিক গবেষণা জানাচ্ছে, এ ধরনের কাপে (Paper cups) কেউ দিনে তিনবার চা পান করলে তাঁর শরীরে ৭৫ হাজার মাইক্রোন প্লাস্টিকের কণা প্রবেশ করে। যা অত্যন্ত ক্ষতিকারক। সহযোগী অধ্যাপক ও গবেষক দলের প্রধান সুধা গোয়েল জানাচ্ছেন, কাগজের কাপ তৈরিতে হাইড্রোফোবিক ফিল্ম ব্যবহার করা হয়। গরম চা কাপে ঢাললে তা গলে যায়। আর তাতেই হয় বিপত্তি। 

কাগজের কাপের উপকরণ ওই ফিল্ম তৈরি হয় মূলত প্লাস্টিক ও অন্য পলিমার মিশিয়ে। যাতে উষ্ণ কাগজ চা ভিজিয়ে দিতে না পারে তাই এই প্রলেপ দেওয়া হয়। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ১০০ মিলি গরম পানীয় ঢালা হলে ১৫ মিনিটে ২৫ হাজার মাইক্রন সাইজের মাইক্রোপ্লাস্টিক কণা সেখানে ভাসতে থাকে। দ্রুত চায়ে মিশে যায় তারা। ফলে কেউ দিনে তিনবার ওই ধরনের কাপ থেকে চা খেলেই তাঁর শরীরে ৭৫ হাজার মাইক্রোন প্লাস্টিকের আণুবীক্ষণিক কণা ঢুকে পড়ে, যা খালি চোখে একেবারেই অদৃশ্য থাকে।

[আরও পড়ুন: BigBasket অ্যাপ ব্যবহার করেন? সাবধান! দু’কোটি ইউজারের তথ্য চুরি করল হ্যাকাররা]

ঠিক কী ধরনের ক্ষতি হতে পারে এই কণা শরীরে গেলে? সুধা গোয়েলের কথায়, ‘‘এই মাইক্রোপ্লাস্টিকগুলিতে ক্রোমিয়াম, ক্যাডমিয়াম জাতীয় বিষাক্ত ভারী ধাতু, জৈব যোগ ইত্যাদি থাকে। এরা শরীরে প্রবেশ করলে গুরুতর শারীরিক সমস্যা হতে পারে।’’

সাধারণভাবে প্লাস্টিকের কাপের থেকে কাগজের কাপকেই অপেক্ষাকৃত বেশি নিরাপদ মনে করা হত। কিন্তু সাম্প্রতিক গবেষণা জানাচ্ছে, সেটাও নিরাপদ নয়। ফলে কাগজের কাপে চা, কফি কিংবা গরম জল খাওয়ায় ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। আইআইটি খড়গপুরের ডিরেক্টর বীরেন্দ্র কে তিওয়ারি জানিয়েছেন, এই ধরনের কাপের ব্যবহার বন্ধ করতে পরিবেশবান্ধব সামগ্রী প্রয়োজন।

[আরও পড়ুন: রুক্ষ দিনে উজ্জ্বল ত্বক চান? রান্নাঘরে থাকা এই জিনিসটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement