BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

৯৫ শতাংশ কার্যকর রাশিয়ার টিকা স্পুটনিক ফাইভও, দাবি প্রস্তুতকারক সংস্থার

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 24, 2020 5:01 pm|    Updated: November 24, 2020 5:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দ্রুত করোনার সম্ভাব্য টিকা আনতে বিশ্বজুড়ে রীতিমতো প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। কার প্রতিষেধক কতটা কার্যকরী, তা জানতেও চলছে গবেষণা। ফাইজার, মোডের্নার, অক্সফোর্ডের পর এবার রুশ প্রতিষেধক স্পুটনিক ফাইভ (Sputnik V) কতটা কার্যকর তা জানানো হল। সংবাদ সংস্থা এএফপি-র দাবি, করোনা প্রতিরোধে ৯৫ শতাংশ কার্যকর এই টিকা। প্রাথমিক পরীক্ষা-নীরিক্ষার পরই এমনটা জানা গিয়েছে।

রাশিয়ার (Russia) স্বাস্থ্যমন্ত্রক, রাষ্ট্র পরিচালিত গামালিয়া রিসার্চ ও রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের তরফে জানানো হয়েছে, রুশ টিকার প্রথম ডোজ প্রয়োগের ৪২ দিন পর এই ফলাফল সামনে এসেছে। তবে কতজনের উপর প্রযোগের নিরিখে এই রিপোর্ট এসেছে, তা জানানো হয়নি।

[আরও পড়ুন : ৯০% কার্যকরী হতে পারে তাদের করোনা ভ্যাকসিন, তৃতীয় দফা ট্রায়ালের পর দাবি অক্সফোর্ডের]

গত বছরের শেষ থেকে বিশ্বজুড়ে দাপট দেখাচ্ছে করোনা মহামারী। সেই দাপট থামাতে একাধিক সংস্থা ভ্যাকসিন আনার চেষ্টা চালাচ্ছে। বিশ্বের ১১টি সংস্থা ইতিমধ্যে ভ্যাকসিন তৈরির শেষপর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে বলে খবর। কোন প্রতিষেধক কতটা কার্যকরী হবে, তা নিয়ে কার্যতি প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গিয়েছে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখালো রুশ প্রতিষেধকও।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের প্রথমদিকে এই টিকা ৯২ শতাংশ কার্যকরী বলে দাবি করা হয়েছিল। তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল চলাকালীন এই দাবি জানানো হয়েছিল। স্পুটনিক ফাইভ। এটিই পৃথিবীর প্রথম করোনার ভ্যাকসিন (Corona Vaccine) যা কিনা জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য বাজারে আনা হয়েছিল। তবে তখনও তথাকথিত তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল বা ‘লার্জ স্কেল’ ট্রায়াল হয়নি।

[আরও পড়ুন : ৩০ সেকেন্ডেই খতম ৯৯.৯% করোনা! নতুন মাউথওয়াশ নিয়ে দাবি ইউনিলিভারের]

আগস্টে জনসাধারণের জন্য ভ্যাকসিনটি ব্যবহারের অনুমতি দিলেও, ‘লার্জ স্কেল’ ট্রায়াল শুরু হয়েছে সেপ্টেম্বরে। আর সেই ট্রায়ালেরই অন্তর্বর্তীকালীন ফলাফল প্রকাশ করেছে রাশিয়া। তাঁদের দাবি, যারা যারা এই ভ্যাকসিনের দুটি ডোজই নিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রবণতা ৯২ শতাংশ কম। এবার তাঁদের দাবি, ৯২ শতাংশ নয় ৯৫ শতাংশ কার্যকরী এই ভ্যাকসিন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement