১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

জানেন কি মাটির কলসিতে রাখা জল পান করলে দূর হতে পারে আপনার শরীরের এই সমস্যাগুলিও?

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 20, 2020 8:54 pm|    Updated: May 20, 2020 8:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাটির কলসি থেকে জল পান করার চল হয়তো অনেক আগেই উঠে গিয়েছে, তবে এর গুণাগুণ সম্পর্কে জানলে অবাক হবেন আপনিও। মাটির কলসি, যা সাধারণত মটকা বলেই পরিচিত আমাদের কাছে। জানেন কি, এই মটকায় রাখা জল পান কতটা স্বাস্থ্যকর? হয়তো অবাক হচ্ছেন শুনে যে, বর্তমানেও মাটির কলসিতে জল রেখে খেতে হবে! কিন্তু এর গুণাগুণ প্রচুর।

জল ঠান্ডা থাকে
মাটির কলসিতে জল ঠাণ্ডা হওয়ার কারণ মূলত বাষ্পীভবন। যখন কোন তরল পদার্থ বাষ্পীভূত হয় তখন তার উষ্ণতা হ্রাস পায়। বাষ্পীভবনের জন্য যে তাপের প্রয়োজন তা তরল পদার্থই সরবরাহ করে থাকে। তাপ হারানোর কারণে তরল পদার্থের উষ্ণতা কমে যায়। মাটির কলসি বানানোর সময় মাটির সঙ্গে খানিকটা বালি মেশানো হয় এবং এর গায়ে অসংখ্য ছোট ছোট ছিদ্র থাকে। সেখান থেকেই মূলত বাষ্পীভন হয়ে জল ঠান্ডা থাকে।

গলা ভাল রাখে
অনেক গায়ক-গায়িকাই রয়েছেন যাঁরা এখনও পর্যন্ত মাটির কলসিতে রাখা জল খান। এতে গলা ভাল থাকে। যাদের ঠান্ডার ধাত থাকে, তারাও মাটির কলসির জল নির্দ্ধিধায় খেতে পারেন।

[আরও পড়ুন: করোনা যুদ্ধে ব্রহ্মাস্ত্র হতে পারে অশ্বগন্ধা, দিল্লি আইআইটির গবেষণায় উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য]

সানস্ট্রোক হওয়া আটকায়
জানেন কি মাটির কলসির জল রুখে দিতে পারে সানস্ট্রোককেও। আমাদের শরীরে সাধারণত ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থের অভাবে সানস্ট্রোক হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। কিন্তু মাটির পাত্র জলে ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থ বজায় রাখতে সাহায্য করে। ফলে এই জল পান করলে সানস্ট্রোকও আটকানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

মেটবলিজম বাড়ায়
প্লাস্টিকের বোতলে থাকা জলে বিসফেলনের মতো টস্কিক, কেমিক্যালস থাকে। যা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক। টেস্টরনের মাত্রাও হ্রাস পায়। কিন্তু মাটির পাত্রের জল টেস্টরন ব্যালেন্স করার ক্ষমতা রয়েছে। যা শরীরের মেটবলিজম বাড়াতে সাহায্য করে।

ভাবছেন তো কোথায় পাবেন মাটির কলসি? চিন্তা নেই বাজারে একটু খোঁজ করলেই পেয়ে যাবেন। বিশেষ করে দশকর্মা ভান্ডারে। এইজন্যই বলে পুরনো চাল ভাতে বাড়ে!

[আরও পড়ুন: হরমোনের তারতম্যেই লকডাউনে অনিয়মিত ঋতুস্রাবের শিকার মহিলারা, জেনে নিন মুক্তির উপায়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement