১০ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জ্বর-জ্বালা বাধলেই ডাক্তারবাবুর প্রেসক্রিপশনে ব্লাড-টেস্ট থাকেই থাকে। তা করাতে হয় প্যাথলজিক্যাল সেন্টারে যেতে হয়, না হয় বেশি খরচ করে বাড়িতেই ল্যাবের লোক ডাকতে হয়। তবে এবার বোধহয় এই পদ্ধতি অনেকটাই সহজ হতে চলেছে। ম্যালেরিয়ার মতো অসুখে রক্তপরীক্ষার জন্য মাথাব্যথা কমাতে নয়া পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন বিজ্ঞানীরা। যার ফলে এবার বাড়ি বসেই এই পরীক্ষা করা সম্ভব। এমনকী ক্যানসারের পরীক্ষাও এভাবে করা যাবে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের।

দক্ষিণ এশিয়া এবং আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ম্যালেরিয়ার প্রকোপ সাংঘাতিক। সঠিক সময়ে রক্ত পরীক্ষা না হওয়ার ফলে প্রাণ যায় অনেকের। কোথাও কোথাও আবার রক্তপরীক্ষার ব্যবস্থাই নেই। এই পরিস্থিতি ভাবিয়েছিল ওহাইও স্টেট ইউনিভার্সিটির একদল গবেষককে। কী করে এই পরীক্ষা পদ্ধতি সহজ করা যায়, তারই খোঁজ করছিলেন তাঁরা। সুগার লেভেল মাপার জন্য যেভাবে বাড়িতেই রক্তপরীক্ষা করা যায়, সেরকম কোনও বিশেষ ব্যবস্থার কথা ভাবছিলেন তাঁরা। আর তা করতে গিয়েই একরকম বিশেষ ধরনের কাগজ আবিষ্কার করেন বিজ্ঞানীরা। বিশেষ এই পেপার স্ট্রিপে একফোঁটা রক্ত দিয়ে সেই পেপারটিকে প্যাথলজিক্যাল সেন্টারে পাঠাতে পারেন রোগীরা। রোগ শনাক্ত হলে তবেই ডাক্তারের কাছে যাওয়া, নচেৎ নয়। রক্ত দেওয়ার মাসখানেক পর পর্যন্ত এই পেপার সঠিক রোগনির্ণয় করতে সাহায্য করতে পারে।

প্রেগন্যান্সি টেস্টের ক্ষেত্রে যেরকম পেপার স্ট্রিপে টেস্ট করা হয়, তার থেকে এই পেপার আলাদা। রসায়নবিদরা জানাচ্ছেন, এই স্ট্রিপের ফলে এক তো সেন্টারে যাওয়ার হ্যাপা থাকছে না। দ্বিতীয়ত, যখনই অসুখের সন্দেহ হবে তখনই এই পরীক্ষা করে নেওয়া যেতে পারে। এর জন্য অসুস্থ হয়ে পড়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না। অর্থাৎ অসুস্থ হওয়ার আগেই সন্দেহ দূর করা যেতে পারে, কিংবা খুব আগেভাগে রোগ ধরা যেতে পারে। তাতে মারাত্মক অসুস্থ হয়ে সংকটে পড়ার সম্ভাবনা প্রায় নেই বললেই চলে। তাঁদের দাবি, বিশেষ এই পেপার স্ট্রিপের সাহায্যে, বৃহদন্ত্রের ক্যানসারের মতো জটিল অসুখেরও পরীক্ষা করা সম্ভব হবে। যতটা স্বল্পমূল্যে সম্ভব এই পেপার বাজারে আনার পরিকল্পনা আছে তাঁদের।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং