BREAKING NEWS

১৬ আষাঢ়  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

রাতকে করে তুলুন আরও রোম্যান্টিক, ঘর সাজান এভাবে

Published by: Bishakha Pal |    Posted: September 15, 2018 9:44 pm|    Updated: September 15, 2018 9:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেম করার জন্য শুধু মনের মতো সঙ্গী পেলেই হয় না। দরকার উপযুক্ত পরিবেশও। তবেই তো আদর জমবে। নাহলে ফ্যাটফ্যাটে টিউব লাইটে বা ঘুটঘুটে অন্ধকারে কি আর ভালবাসাবাসি চলে? আদর জমাতে গেলে পরিবেশ তৈরি করতে হয়। আজ রাতে না হয় সেভাবেই সারপ্রাইজ দিন আপনার সঙ্গীকে।

মোনোগ্রাম করা মগ বা ওয়াইন গ্লাস

ডিনারে আজ না হয় থাকুক ওয়াইন। তাহলে কিন্তু সে বাড়ি ঢোকার আগেই আপনাকে সাজিয়ে ফেলতে হবে ডিনার টেবিল। ওয়াইন না খেলে সরবত থাকতে পারে মেনুতে। সেক্ষেত্রে ব্যবহার করুন মনোগ্রাম করা মগ। তবে খেয়াল রাখুন, মনোগ্রামের বার্তা যেন হয় প্রেমপূর্ণ।

কীভাবে যত্নে রাখবেন চিনামাটির বাসন? রইল টিপস ]

বালিশ

বিছানা যে বালিশে সাজবে সেটি হোক না হৃদয় আকারের। যদি বাড়িতে না থাকে, তাহলে বাজার থেকে এমন দু’টো বালিশ কিনেও নিতে পারেন। তবে অবশ্যই রং সম্পর্কে সচেতন থাকুন। রং অতি অবশ্যই হতে হবে লাল।

মোমবাতি

মোমবাতি কিন্তু সবসময় রোম্যান্সের আমেজ আনে। সুন্দর মোমদানির মধ্যে মোমবাতি জ্বালিয়ে রাখুন। বাকি ঘর অন্ধকার করে দিন। ওই আলো আঁধারির খেলায় আপনার সঙ্গী মজে যেতে বাধ্য।

উপহার

এমন দিনে উপহার কিন্তু মাস্ট। দামী নয়। এমন দিনে চাই রোম্যান্টিক উপহার। যদি আপনার সঙ্গী বই পছন্দ করে তবে নির্দ্বিধায় কিনে ফেলুন কোনও রোম্যান্টিক গল্প বা উপন্যাসের বই। তার সঙ্গে বাক্স ভরতি চকোলেট। নাহলে গোলাপগুচ্ছেও কাজ চলতে পারে। কিন্তু গোলাপ যেন হয় লাল। কারণ প্রেম জাগাতে লাল গোলাপের বিকল্প নেই।

পরের দিনের প্রাতরাশ

আমেজ কি শুধু রাতে জন্যই। প্রেম তো সকালে আরও ফুরফুরে হয়। তাই সুন্দর রাতের পর যদি সুন্দর সকাল চান, তবে নিজে কষ্ট করে একটু তাড়াতাড়ি উঠে তার জন্য চা বানিয়ে আনুন। সঙ্গে প্রাতঃরাশ। রান্না করতে পারেন না? কুছ পরোয়া নেহি। যেটুকু পারেন তাতেই কাজ চলে যাবে। কারণ সকালে ঘুম থেকে উঠে মুখের সামনে চা পেলে এমনিতেই মন ভাল হয়ে যায়। আর তা যদি নিজের কাছের মানুষের হাতে বানানো হয়, তাহলে তো কথাই নেই। এমনিতেই আগের রাতের সুন্দর অভিজ্ঞতার রেশ তখনও কাটবে না। তার উপর যদি সকালেও এমন সারপ্রাইজ আসে, তাহলে গোটা বিষয়টাই জমে ক্ষীর।

ঘরের গাছে কখন জল দেবেন, যত্নই বা নেবেন কীভাবে? ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement