BREAKING NEWS

৩ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পরকীয়া করেন না প্রমাণ করতে সালিশি সভায় যৌনাঙ্গ কাটলেন যুবক, তারপর…

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 7, 2020 8:24 pm|    Updated: September 7, 2020 8:38 pm

A youth cuts his private part in Madah's Manikchak

বাবুল হক, মালদহ: পরকীয়ার পরিণতি কতই না বিচিত্র! অন্য কোনও মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক নেই প্রমাণ করতে সালিশি সভায় ব্লেড দিয়ে নিজের যৌনাঙ্গ কেটে ফেললেন এক ব্যক্তি। সোমবার বিকেলে এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের (Maldah) মাণিকচক থানার নুরপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়।

বছরখানেক আগে খুরশেদ মোমিনের সঙ্গে ওই গ্রামেরই বাসিন্দা আসমিরা খাতুনের বিয়ে হয়েছিল। বিয়ের পর থেকেই স্বামী অত্যাচার করতেন বলেই অভিযোগ আসমিরার। গ্রামেরই অন্য এক মহিলার সঙ্গে স্বামীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন আসমিরা খাতুন। আর এই নিয়েই ওই দম্পতির সংসারে অশান্তি তৈরি হয়। তার জেরে দিনকয়েক আগে তাঁর স্ত্রী বাপের বাড়ি চলে যান। দাম্পত্য অশান্তি মেটাতে সোমবার বিকেলে নুরপুর গ্রামেই বসে সালিশি সভা। প্রকাশ‍্য সভায় প্রচুর মানুষের জমায়েত। সালিশি সভায় স্বামীর বিরুদ্ধে ফের একই অভিযোগ তোলেন স্ত্রী। অন‍্য এক মহিলার সঙ্গে স্বামীর সম্পর্ক রয়েছে বলেই দাবি করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: সিরিয়ালের দৃশ্য অনুকরণ করে গলায় ফাঁস, মর্মান্তিক পরিণতি মুর্শিদাবাদের খুদে পড়ুয়ার]

আর এই অপবাদ শুনে অপমানিত বোধ করেন ওই যুবক। পকেট থেকে হঠাৎ ব্লেড বের করে ফেলেন। সালিশি সভায় সকলের সামনেই নিজের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেন স্বামী। রক্তারক্তি কাণ্ড হয়। স্বামী খুরশেদ মোমিন জানিয়েছেন, সবসময় তাঁর স্ত্রী সন্দেহ করেন। কারও সঙ্গে তাঁর পরকীয়া নেই। তিনি বলেন, “গ্রামবাসীদের সামনে আমার বদনাম করেছে স্ত্রী। আমার সন্মান নষ্ট করেছে। তাই আমি নিজেই যৌনাঙ্গ কেটে ফেলেছি।”

রক্তাক্ত অবস্থায় প্রথমে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় মাণিকচক গ্রামীণ হাসপাতালে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে মালদহ মেডিক‍্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। চক্রান্ত করে খুনের মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে বলে পালটা স্বামীর বিরুদ্ধে মাণিকচক থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই গৃহবধূ। তদন্ত শুরু করেছে মাণিকচক থানার পুলিশ।

[আরও পড়ুন: এখনই রাজ্যে চালু হচ্ছে না নতুন শিক্ষানীতি, কেন্দ্রের বৈঠকের পর স্পষ্ট জানালেন পার্থ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement