BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

কোয়ারেন্টাইনে থাকাকালীনই হোটেলে উদ্দাম যৌনতার জের, অস্ট্রেলিয়ায় ফের ছড়াচ্ছে করোনা

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 4, 2020 1:18 pm|    Updated: July 4, 2020 1:18 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কোয়ারেন্টাইনে হোটেলে চলছে উদ্দাম যৌনতা। কেউ সময় কাটাতে যৌন সংসর্গ করছেন। তো কেউ আবার কাজ হারানোর দুঃখ ভুলতে। আর তারফলেই অস্ট্রেলিয়ার (Australia) মেলবোর্নে শহরে হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। পরিস্থিতি এতটাই সঙ্গীন যে কারা কারা যৌনতায় মজেছিলেন, কারা কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম মানেননি, তা খুঁজতে তদন্ত শুরু করার নির্দেশ দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী।

অস্ট্রেলিয়ায় জুন মাস থেকে হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এর জন্য দুটি বিষয়কে দায়ী করেছে সে দেশের প্রশাসন। এক, বহু মানুষ অস্ট্রেলিয়ায় (Australia) ফিরেছেন। তাঁদের সকলেই বাধ্যতামূলক ভাবে বিভিন্ন হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে থাকলেও যথাযথ নিয়ম মানছেন না। সেই সঙ্গে বেড়েই চলেছে যৌনসংসর্গ। সম্প্রতি সমীক্ষায় দেখা গেছে অস্ট্রেলিয়ায় বেশির ভাগ মানুষ লকডাউনে যৌনতায় মজেছেন।

[আরও পড়ুন : মোদির ‘আত্মনির্ভর ভারত’ মন্ত্রে অনুপ্রাণিত, দেশেই ‘যৌন পুতুল’ তৈরি করবেন যুবক!]

ভিন দেশ থেকে অস্ট্রেলিয়ায় গেলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক। কিন্তু হোটেলগুলিতে কোয়ারেন্টাইনে থাকা অনেকেই গাইডলাইন মানেননি। ফলে সেই সব হোটেলের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন প্রশাসন। মেলবোর্নের একটি নামী হোটেল থেকেই একদিনে ৩১ জন করোনা পজিটিভ (Covid Positive) চিহ্নিত হয়েছেন। অন্য আরও দুটি হোটেল থেকেও বেশ কিছু জন ধরা পড়েছেন। এবং প্রত্যেকেই পরে স্বীকার করেছেন যে কোয়ারেন্টাইন সময় কাটাতে নিজেরা যৌনতায় ব্যস্ত ছিলেন। যেহেতু করোনার প্রকোপে অনেক মানুষ চাকরি খুইয়েছেন তাই অনেকেই যৌনতায় মজেছেন সেই দুঃখ ভুলতে। আর কিছু হোটেলও এ ব্যাপারে সাহায্য করেছে।

[আরও পড়ুন : শাঁখা-সিদুর না পরা মানে বিয়ে অস্বীকার, গুয়াহাটি হাই কোর্টের বিচারপতির মন্তব্যে বিতর্ক]

অস্ট্রেলিয়ার (Australia) প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই ঘটনায় দোষী প্রমাণিত হলে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে। মেলবোর্নে নতুন করে আবার লকডাউন শুরু করা হয়েছে। আগামী দুসপ্তাহের জন্য বাইরের দেশ থেকে কোনও অতিথি অস্ট্রেলিয়ায় ঢুকতে পারবেন না। এছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে বসবাসকারী কেউ মেলবোর্নে আসতে চাইলে অনুমতি লাগবে। তবে এই ঘটনা একটি নতুন প্রশ্ন তৈরি করে দিল। বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, করোনা আবহে যৌনসঙ্গম করা নিরাপদ। তাহলে কীভাবে ছড়াল করোনা সংক্রমণ?

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement