BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দুই স্ত্রীর সঙ্গে যৌন মিলনের ‘লাইভ স্ট্রিমিং’ করে লাখপতি! অবশেষে শ্রীঘরে অভিযুক্ত

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 25, 2020 4:12 pm|    Updated: October 25, 2020 4:12 pm

An Images

প্রতীকী চিত্র।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্কদুই স্ত্রীর সঙ্গে যৌন মিলনের দৃশ্য ‘লাইভ’ সম্প্রচার (Live streaming) করে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করছিল ২৪ বছরের এক যুবক। নানা ডেটিং অ্যাপে ওই ‘শো’-এর বিনিময়ে সে টাকা নিত ইউজারদের থেকে। ১০০ টাকায় ডেমো থেকে শুরু করে ১০০০ টাকা পর্যন্ত নানা রকম চার্জ আদায় করত সে। অবশেষে তার দ্বিতীয় স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) বিদিশার বাসিন্দা অভিযুক্ত ওই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ওই মহিলা ধর্ষণ ও গোপনীয়তা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছেন।

দশম শ্রেণির পরে আর পড়াশোনা করা হয়ে ওঠেনি। তবু ওই যুবক প্রযুক্তিগত ভাবে বেশ ভালোই দক্ষ ছিল। নানা ডেটিং অ্যাপে সক্রিয় হয়ে টাকা রোজগার করত সে। এরপরই তার মাথায় আসে অর্থ রোজগারের এই ঘৃণ্য উপায়ের কথা। জানা গিয়েছে, ওই অ্যাপে তার নিজের ডিসপ্লে ছবিতে কেউ লাইক করলেই তার কাছে পৌঁছে যেত মেসেজ। সেই মেসেজে থাকত একটি মেনু। সেই মেনু অনুযায়ী, ১০০ টাকায় মিলত ডেমো। এরপর ছিল তিনটি পর্যায়— ৫০০ টাকা, ৭০০ টাকা ও ১০০০ টাকা। ‌লাইভ স্ট্রিমিংয়ে মুখ দেখানো কিংবা না দেখানোর জন্য ছিল চার্জের বিভিন্নতা। 

[আরও পড়ুন: পুরুষের তুলনায় যৌন চাহিদা বেশি নারীর, নেপথ্যে কোন রহস্য? জানালেন বিশেষজ্ঞরা]

তবে অভিযুক্তের প্রথম স্ত্রী, যিনি এখন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা, তাঁর কোনও অভিযোগ নেই স্বামীর বিরুদ্ধে। পুলিশ সুপারিটেন্ডেন্ট বিকাশ পাণ্ডে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‘প্রথম স্ত্রীর কোনও অভিযোগ নেই। ওঁকে সুন্দর ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখিয়ে রেখেছে অভিযুক্ত।’’ জানা গিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের প্রথম পরিচয় হয়েছিল। দ্বিতীয় স্ত্রীর সঙ্গে ওই যুবকের পরিচয় হয় এক আধ্যাত্মিক গুরুর সূত্রে। ওই গুরুর ভক্ত ছিলেন তার দ্বিতীয় স্ত্রী। সেই সময় নিজেকে ওই গুরুর ভক্ত পরিচয় দিয়ে তাঁর সঙ্গে আলাপ জমায় অভিযুক্ত।

পুলিশি জেরার মুখে নিজের অপরাধ স্বীকার করেছে অভিযুক্ত। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির নানা ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ তল্লাশি চাল‌িয়ে যুবকের কাছ থেকে নগদ ১২ লক্ষ টাকা এবং ফোন উদ্ধার করেছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে তার ব্যাঙ্ক লেনদেনও। দেখা গিয়েছে, একটি অ্যাকাউন্ট থেকেই গত ২৮ আগস্ট থেকে ৬ লক্ষ টাকার লেনদেন হয়েছে! পুলিশের অনুমান, অভিযুক্ত দৈনিক ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা রোজগার করত।

[আরও পড়ুন: বিছানার চাদর জড়িয়ে ফটোশুটে ‘বিতর্ক’, সমালোচকদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার ভাবনা দম্পতির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement