১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সমলিঙ্গে প্রেমের স্বীকৃতি মিলেছিল আগেই। কিন্ত সংসার করা বা ছেলেমেয়েকে লালনপালন করতে একাধিক সমস্যার মুখে পড়তে হয় তাঁদের। অনেকক্ষেত্রেই বাকি দম্পতিদের মতন সন্তান লালনপালনের জন্য অফিস থে্কে ছুটি পেতেন না তাঁরা। এবার সেই মুশকিল আসান করল তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা টেক মাহিন্দ্রা। হাতেগোনা কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থার পথে হেঁটে সংস্থায় কর্মরত সমকামী দম্পতিদের জন্য অভিভাবকত্বের ছুটি্ চালু করল তাঁরা।

টেক মাহিন্দ্রার নতুন নীতি অনুযায়ী, সমকামী যুগলদের কথা মাথায় রেখেই ১২ সপ্তাহের পেইড অ্যাডপশন লিভের সুবিধা শুরু হল। শুধু তাই নয়। আত্মীয়ের মৃত্যুর জন্য তিনদিন ছুটি বরাদ্দ করা হচ্ছে। নতুন বছর থেকেই এই নতুন নীতি চালু হবে বলে খবর।

[আরও পড়ুন : ছবিই প্রতিবাদের ভাষা, প্রি ওয়েডিং ফটোশুটে CAA বিরোধিতা যুগলের]

বিভিন্ন সংস্থা কাজের ক্ষেত্রে কর্মীদের জন্য সমানাধিকারের নীতি নিচ্ছে। ফলে এলজিবিটি সম্প্রদায়ের জন্যও সমান সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা রাখছেন তাঁরা। কাজের ক্ষেত্রে কর্মীদের সহযোগিতা, কাজের মান বাড়াতে নিত্যনতুন পন্থা নিচ্ছেন সংস্থা কর্তৃপক্ষ। কর্মীদের সুবিধা-অসুবিধার দিকেও বিশেষ রাখা হচ্ছে। আর তাই বহু সংস্থায় এখন কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। সেই নীতি মেনে টেক মাহিন্দ্রা নতুন নীতি এসেছে। যেখানে বলা হয়েছে, সমকামী যুগল অভিভাবকত্বের জন্য ১২ সপ্তাহ ছুটি পাবেন। সদ্য অভিভাবকদের জন্য থাকছে বাড়ি থেকে কাজের (Work from home) সুবিধাও। পাশাপাশি সংস্থার মধ্যে নতুন গ্রুপ তৈরি করা হয়েছে। যারা সংস্থায় কর্মরত সদ্য মা হওয়া মহিলাদের, ক্যানসার জয়ী কর্মীদের পাশে দাঁড়াবে। তাঁদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে।

[আরও পড়ুন : পরকীয়া ভুলে সুখী দাম্পত্য জীবনে ফিরতে চান? রইল পাঁচটি টিপস]

এ প্রসঙ্গে টেক মহিন্দ্রার চিফ পিপল অফিসার হর্ষবেন্দ্র সোইন জানিয়েছেন, “কর্মীদের প্রয়োজনকে প্রাধান্য দেওয়া এবং তাঁদের পাশে দাঁড়ানোই আমাদের লক্ষ্য। আর সেই লক্ষ্যে সফল হতে আমরা পা বাড়ালাম এক নতুন পরিবর্তনের দিকে।’ তাঁদের এই নয়া নীতিতে খুশি সংস্থার কর্মীরাও। তাঁদের কথায়, “কর্তৃপক্ষ কর্মীদের কথা ভাবছে। আমাদের সম্মান দেওয়া হয়েছে। তা দেখে আমরা গর্বিত।” 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং