৭ শ্রাবণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

একটা দিন তো নয়, মা প্রতিদিনের, প্রতি মুহূর্তের৷ তবু মাতৃদিবস একটা উদযাপনের দিন বটে৷ কীভাবে এই বিশেষ দিনটিতে মায়ের জীবনটা আনন্দে ভরিয়ে দেবেন, তা নিয়ে চিন্তিত অনেকেই৷ দেখুন তো, এসব উপহারে আপনার গর্ভধারিণী কতটা খুশি হন৷

সুরভিত
দিনের শেষে মায়ের হাড়ভাঙা খাটনির পর মন ও মুড রিল্যাক্স করার জন্য উপহার দিন অ্যারোমা অয়েল ডিফিউজার। ঘরের এক কোনায় রেখে দিলে নিমেষেই এর সুগন্ধ ক্লান্তি মুছে আনবে ঝরঝরে অনুভূতি।

[আরও পড়ুন: OMG! ভেষজ ভায়াগ্রাতেও রয়েছে মৃত্যুর হাতছানি]

সবুজের অভিযান
মায়ের যদি থাকে গার্ডেনিংয়ের শখ, তাহলে উপহার হোক বাহারি সেরামিকের টব, রেলিংয়ে ঝোলানো যাবে এমন গাছ পোঁতার প্লান্টার। এখন অনলাইন সাইট ও নার্সারিতে পেয়ে যাবেন এ ধরনের সুদৃশ্য টব ও প্লান্টার। যদি উপহারে আনতে চান বাড়তি চমক, তাহলে বাহারি টবে বসানো কিছু সাকিউলেন্ট গাছ দিন। লো—মেন্টেনেন্স এই গাছ বসার ঘর থেকে বাথরুম যে কোনও জায়গায় শোভা বাড়িয়ে তোলে কয়েকগুণ। এছাড়া ফল ও ফুলের বীজ, প্রয়োজনীয় সার ও গার্ডেনিং টুলসের সেটও দারুণ উপহার।

tub

কোজি কর্নার
মায়ের যদি ঘর সাজানোয় ঝোঁক থাকে, তাঁর জন্য বেছে নিন এমন এক উপহার। পছন্দের পিলো কভারের ওপর পার্সোনাল মেসেজ লিখে দেওয়া হয় যে কোনও কাস্টোমাইজ্‌ড গিফটিং স্টোরে। শুধুমাত্র মেসেজ নয়, চাইলে ছবিও ছাপিয়ে দেওয়া হবে পিলো কভারে।

পোশাকি
যে সব মায়েরা বাড়িতে হাউজকোট পরতে অভ্যস্ত তাঁদের জন্য এটাই বেছে নিন উপহার হিসেবে। সাদামাটা নয়, চোখ-কান খোলা রেখে অনলাইন বা স্টোরেও পেয়ে যাবেন সুতি, কলমকারি, বাটিকের হাউজকোট ও রোব।

kalmkari

তোমায় দিলাম
উঁহু, শুধুমাত্র পোশাকের দোকান নয়, গয়না, বই, ঘড়ি যাবতীয় স্টোরে পেয়ে যাবেন সেখানকার নির্দিষ্ট ভাউচার। মায়ের নিজের পছন্দের মতো উপহার কিনে নেওয়ার এই সুযোগ কিন্তু কম স্পেশাল নয়।

[আরও পড়ুন: ৭৭ বার সঙ্গমেও বন্ধুর স্ত্রীকে গর্ভবতী করতে ব্যর্থ, যুবকের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা]

ফুল বলে
মাতৃদিবসে ফুলের চেয়ে সেফ গিফট  কম। ভিনদেশ বা পড়শি রাজ্যেও অনলাইনের মাধ্যমে ফুল পৌঁছে যাবে দোরগোড়ায় – এমন ব্যবস্থাও রয়েছে সমস্ত নামকরা অনলাইন ফ্লাওয়ার ডেলিভারি সাইটে।

flower

স্বাস্থ্য সচেতন মায়েদের জন্য যোগা ম্যাটের কোনও বিকল্প নেই। নিয়মিত যাঁরা শরীরচর্চা করেন, তাঁরা খালি ফ্লোরের বদলে এই ম্যাট ব্যবহার করলে আরও বেশি স্বচ্ছন্দবোধ করবেন। সঙ্গে মায়ের ভোরবেলার মর্নিং ওয়াকের দোসর হোক আরামদায়ক রানিং শু। হাঁটুর ব্যথা বা পায়ের সমস্যায়ও দারুণ কার্যকরী এটি।

যত্নআত্তি
হাতের হাজারো কাজ সেরে মায়েদের সকালের এককাপ চা আকছার ঠান্ডা জল হয়ে যায়। উপায় নতুন করে চায়ের জল বসানো বা পুরনো চা ফুটিয়ে নেওয়া। এই সমস্যার উপহার হোক টেম্পারেচার কন্ট্রোল কফি মগ। চা তৈরি করে মাগে ঢেলে টেম্পারেচার প্রিসেট করে দিন। প্রায় একঘণ্টা আপনার সেট করা তাপমাত্রায় গরম থাকবে পানীয়।

coffee mug
হোম সালোঁ সার্ভিস এখন দারুণ পপুলার। মায়ের কাজের চাপ যেদিন কম, তা জেনেবুঝে নিজের ফোনের অ্যাপ থেকে বুক করুন সার্ভিস। স্পা, পেডিকিওর, ম্যানিকিওর, বডি মাসাজের প্যাকেজ বুক করে নিন। থেরাপিস্ট মাকে প্যাম্পার করে যাবে দোরগোড়ায় এসে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং