Advertisement
Advertisement
Amazon

প্রতারণা রুখতে ‌আমাজনের মতো স্বদেশি ই–কমার্স সংস্থা তৈরিতে জোর, এবার কমিটি গঠন কেন্দ্রের

ই–কমার্স সংক্রান্ত আইন ভাঙায় জরিমানা হল আমাজনের।

Central Government sets up committee to launch desi Amazon | Sangbad Pratidin
Published by: Abhisek Rakshit
  • Posted:November 27, 2020 11:02 pm
  • Updated:November 27, 2020 11:02 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌‌ ‌দেশে হু হু করে বাড়ছে ই–কমার্সের (E-Commerce) ব্যবসা। আর সেইসঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিভিন্ন ই–কমার্সের নাম করে সাধারণ মানুষকে ঠকানোর প্রবণতাও। তা রুখতেই এবার আমাজনের (Amazon) মতো স্বদেশি ই–কমার্স সংস্থা তৈরি করতে আরও নড়েচড়ে বসল কেন্দ্র।

এর আগে এই পরিকল্পনা ভাবনাচিন্তার স্তরে থাকলেও এবার একেবারে কমিটিই গঠন করে ফেলল নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) সরকার। বাণিজ্য মন্ত্রকের তরফ থেকে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটিই এই Open Network for Digital Commerce বা ওএনডিসি–র (‌ONDC) নীতি নির্ধারণ করবে। কোনও ভাবেই যাতে সাধারণ মানুষকে ঠকানো বা কোনও অপরাধমূলক কাজ সংঘটিত না হতে পারে, সেরকমই নীতি নির্ধারণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন:‌ ল্যান্ডলাইন থেকে মোবাইলে ফোন করার নিয়ম বদলাচ্ছে, জেনে নিন নয়া পদ্ধতি‌]

ফ্লিপকার্ট কিংবা আমাজনের মতোই ই–কমার্স সংস্থাগুলো মতোই স্বদেশি ই–কমার্স সংস্থাটি তৈরি করা হবে। জানা গিয়েছে, নবগঠিত কমিটিতে মোট ১১ জন রয়েছেন। All India Traders–এর সাধারণ সচিব প্রবীণ খাণ্ডেলওয়ালও রয়েছেন তাতে। ‌

Advertisement

এদিকে, এর মধ্যেই বিপাকে আমাজন। ই–কমার্স সংক্রান্ত আইন অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট সংস্থা যে পণ্য বিক্রি করবে, সেটি কোন দেশে উৎপাদিত, তা জানানো বাধ্যতামূলক। কিন্তু আমাজন সেই আইন মানেনি। এরপরই ই–কমার্স সংক্রান্ত আইন ভাঙার দায়ে আমাজনকে নোটিস পাঠিয়েছিল কেন্দ্র। তাতে বলা হয়েছিল, আমাজন মধ্যসত্ত্বভোগী হিসেবে আইন মেনে ক্রেতাদের প্রয়োজনীয় তথ্য দেয়নি। সেই অভিযোগেই আমাজনকে এবার ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করল কেন্দ্র।

[আরও পড়ুন:‌ ভুয়ো মেসেজের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ না করার ‘শাস্তি’, মোটা অঙ্কের জরিমানা হল টেলিকম সংস্থাগুলির]

তবে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে আবার অখুশি ‘কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স’ বা সিএআইটি। ই-কমার্স সংক্রান্ত শর্ত লঙ্ঘনের গুরুতর অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পরেও কেন এত কম টাকা জরিমানা করা হল আমাজনকে?‌ কেন্দ্রকে পালটা প্রশ্ন CIT-‌র। তাঁদের মতে, এটি গুরুতর শর্ত লঙ্ঘনের ঘটনা। তাই এ ক্ষেত্রে, শাস্তির মাত্রা অনেক বেশি হওয়া উচিত ছিল।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ