Advertisement
Advertisement
Flipkart

‌আরও বিপাকে আমাজন–ফ্লিপকার্ট, এবার এই কারণে দুই সংস্থাকে নোটিস কেন্দ্রের

১৫ দিনের মধ্যে দুই সংস্থাকে জবাব দেওয়ার নির্দেশ।

Central Govt Issues Notice to Amazon & Flipkart for Not Displaying Country of Origin Amid Sale Season | Sangbad Pratidin‌‌
Published by: Abhisek Rakshit
  • Posted:October 18, 2020 10:36 pm
  • Updated:October 18, 2020 10:36 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ আরও বিপাকে ফ্লিপকার্ট (Flipkart) এবং অ্যামাজন (Amazon)। নিয়ম না মানায় দুই বিদেশি ই–কমার্স সংস্থাকে নোটিস পাঠাল কেন্দ্র। উৎসবের মরশুমে দুই সংস্থা যে বিশেষ ছাড়ের আয়োজন করেছে, সেখানে বিক্রিত পণ্যগুলোতে কোন দেশে তৈরি হয়েছে, তা লেখা নেই। গত ১৫ অক্টোবর দুই সংস্থাকে নোটিস পাঠানোর পাশাপাশি আগামী ১৫ দিনের মধ্যে জবাব দিতেও বলা হয়েছে।

করোনা আবহে ‘‌আত্মনির্ভর ভারত’‌ তৈরির ডাক দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। স্বদেশী জিনিসপত্রের কেনার উপর আরও বেশি জোর দিতে বলেছিলেন দেশবাসীকে। তার উপর নির্দেশ দেওয়া হয়, এবার থেকে কোনও পণ্য বিক্রি করতে গেলে, সেটি কোন দেশে উৎপাদন করা হয়েছে, তার উল্লেখ করতে হবে। কিন্তু অভিযোগ, ফ্লিপকার্ট এবং অ্যামাজন তাঁদের উৎসব উপলক্ষ্যে আয়োজিত বিশেষ ছাড়ের ইভেন্টে এই নিয়ম মানছে না। কোনও পণ্যের গায়েই ওই তথ্য দেওয়া নয়। এরপরই নড়চড়ে বসে কেন্দ্র। নোটিস পাঠিয়ে ১৫ দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়। নাহলে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন:‌ এবার চাঁদে গেলেও মিলবে 4G পরিষেবা! নোকিয়ার সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে দাবি নাসার]

তবে সম্প্রতি অ্যামাজনের তুলনায় বেশি বিপাকে পড়েছে ফ্লিপকার্ট। কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রক বোর্ডের নিয়মভঙ্গ করা হোক কিংবা বিচ্ছিন্নতাবাদে মদত দেওয়া, গত কয়েকদিনে একাধিক অভিযোগ উঠেছে এই ই–কমার্স সংস্থার বিরুদ্ধে। তবে এর মধ্যে গুরুতর বিচ্ছিন্নতাবাদে মদত দেওয়ার অভিযোগ। কয়েকদিন আগেই নাগাল্যান্ডের (Nagaland) রাজধানী কোহিমার এক গ্রাহকের পরিষেবা সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তরে ফ্লিপকার্ট জানিয়েছিল, ওই রাজ্য দেশের বাইরে। তাই সেখানে পরিষেবা দেওয়া হয় না। সংস্থার এই জবাবে শুরু হয় তুমুল বিতর্ক।

Advertisement

[আরও পড়ুন:‌ বন্ধু গুগল ম্যাপ, ১১ বছর পর নিজের বাড়িতে ফিরল অপহৃত নাবালক]

ভারতে ব্যবসা করে দেশেরই একটি অঙ্গরাজ্যকে নিয়ে এহেন বয়ানে সরব হন নাগাল্যান্ডের ডিজি থেকে শুরু করে ত্রিপুরার রাজবংশের বর্তমান বংশধর প্রদ্যোৎ বিক্রম মাণিক্য দেববর্মা। হাজার হাজার নেটিজেনদের রোষের মুখেও পড়তে হয় সংস্থাটিকে। ভারতের মতো বিশাল বাজারে ব্যবসা করছে ই-কমার্স সাইট। তাদের ভারতের ইতিহাস-ভূগোল সম্পর্কে ন্যূনতম জ্ঞান থাকা উচিত। নাগাল্যান্ডকে ভারতের বাইরে বলে ফ্লিপকার্ট যে ভুল করেছে তার কোনও ক্ষমা নেই বলেও মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ।বিপদ বুঝে পরিস্থিতি সামাল দিতে ক্ষমা চায় ফ্লিপকার্ট। এই ভুলের জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করে সংস্থাটি। উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে যাতে পরিষেবা দেওয়া যায়, তা চেষ্টা করারও আশ্বাস দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে নাগাল্যান্ডের সঙ্গে যুক্ত হতে পারলে খুব খুশি হবে ফ্লিপকার্ট বলে জানায় সংস্থাটির কর্তৃপক্ষ। যদিও তাতে বিশেষ লাভ হয়নি।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ