ad
ad

Breaking News

Islamophobic

‘ইসলাম ভীতি’র পোস্টে লাইক! নেটদুনিয়ার রোষানলে পড়ে ক্ষমা চাইল কাফে সংস্থা

কোন ছবিতে লাইক করে সমালোচনার মুখে পড়ল সংস্থাটি?

Chaayos apologised after Twitter outrage on controversial post | Sangbad Pratidin
Published by: Sulaya Singha
  • Posted:September 2, 2022 7:22 pm
  • Updated:September 2, 2022 7:22 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইসলাম নিয়ে ভীতি তৈরি করা ছবিতে লাইক দিয়ে নেটিজেনদের রোষানলে কাফে চেন সংস্থা চাওস (Chaayos)। সোশ্যাল মিডিয়ায় এহেন ইস্যুতে ভীতি ছড়ানোর অভিযোগে বিদ্ধ হয় সংস্থাটি। তীব্র বিতর্কের মুখে অবশেষে ক্ষমাও চায় তারা।

বেশ কিছু টুইটার ইউজার একটি স্ক্রিনশট তুলে ধরেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে জঙ্গলের মধ্যে একটি সাপের ছবি। সেই সাপের সঙ্গেই ইসলাম তথা মুসলিম সম্প্রদায়ের তুলনা টানা হয়েছে। আর এই পোস্টটিতেই লাইক করে চাওস। তাতেই সমালোচনার মুখে পড়তে হয় কাফে সংস্থাটিকে। অনেকের অভিযোগ, এই ধরনের ছবি লাইক করে ইসলাম নিয়ে ভয়ের (Islamophobic) বাতাবরণ তৈরির চেষ্টায় মদত করছে কাফে সংস্থাটি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সাম্প্রদায়িকতাকে উসকে দেওয়া হচ্ছে। সংস্থাটিকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে বলেও সরব হয় নেটিজেনদের একাংশ।

[আরও পড়ুন: এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গেলেন রবীন্দ্র জাদেজা, পরিবর্তের নাম ঘোষণা করল BCCI]

বিতর্ক চরমে পৌঁছতে শেষমেশ ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামে সংস্থাটি। ক্ষমা চাওয়ার পাশাপাশি তারা দাবি করে, তাদের টুইটার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছিল। অর্থাৎ পোস্টটি সংস্থার তরফে লাইক করা হয়নি বলেই ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।

নিজেদের বিবৃতিতে চাওস লেখে, “একটি আপত্তিকর টুইটে আমাদের অ্যাকাউন্ট থেকে লাইক করা হয়েছিল। পোস্টে যা লেখা ছিল, তেমন কোনও মতাদর্শ বা বক্তব্যকে আমরা সমর্থন করি না। আমরা সকলের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। কারও ভাবাবেগে আঘাত লেগে থাকলে মাফ করবেন।” এর পাশাপাশি এই কাফে চেন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা নীতীন সালুজা দাবি করেন, চাওসের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছিল। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই সংস্থা যে প্রত্যেকটি ধর্ম ও বিশ্বাসকে সম্মান করে, সে কথাও স্পষ্ট করে দেন তিনি।

[আরও পড়ুন: কয়লা নয়, এটা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক কেলেঙ্কারি, অমিত শাহ সবচেয়ে বড় পাপ্পু, বললেন অভিষেক]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ