Advertisement
Advertisement
Facebook-Instagram

হ্যাকারদের কবলে ‘বাঙালি-আনা’র সোশ্যাল অ্যাকাউন্ট, সতর্ক থাকুন আপনিও!

পুলিশের দ্বারস্থ হয়েও বিশেষ লাভ হয়নি।

Facebook-Instagram like Social accounts of Bangali-Aana hacked, later recovered | Sangbad Pratidin
Published by: Sulaya Singha
  • Posted:July 28, 2021 12:03 pm
  • Updated:July 28, 2021 12:03 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিরাপদ নয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট। বারবারই শিরোনামে উঠে আসছে অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার ঘটনা। এবার সাইবার হানার শিকার বাঙালি-আনা নামের একটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট। এমনকী এই অ্যাকাউন্টের সদস্যরা এখন পেজে প্রবেশই করতে পারছিলেন না।

বাঙালি-আনা একটি প্রতিষ্ঠিত সংস্থা। বিগত পাঁচ বছর ধরে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যেমে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের জায়গা তৈরি করেছে তারা। মানুষের ভালবাসায় ইনস্টাগ্রাম পেজটির ফলোয়ার সংখ্যা ১ লক্ষ ২৯ হাজার ছাড়িয়েছে। ফেসবুকে (Facebook) ২লক্ষ ৮৫ হাজার ফলোয়ার। সংখ্যাতেই স্পষ্ট যে একটা কমিউনিটি তৈরি করতে সফল হয়েছে বাঙালি-আনা। কিন্তু গত ২৮ জুন বাঙালি-আনার অ্যাকাউন্টটি সাইবার হানার কবলে পড়ে। এর সদস্যরা অ্যাকাউন্টে (Instagram Account) ঢুকতেও পারছেন না।

Advertisement

[আরও পড়ুন: পর্ন দেখলেই হাজতবাস, বাঁচতে লাগবে ৩ হাজার টাকা! ব্যাপারটা কী?]

আচমকাই হ্যাকারদের হানায় মনোবল ভেঙে গিয়েছে পেজের সদস্যদের। এতদিনের সমস্ত প্রচেষ্টা জলে চলে যেতে দেখছেন তাঁরা। প্রতিকারের কোনও পথও খুঁজে পাচ্ছেন না। বাঙালি-আনার গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরা বেশ কয়েকটি সংস্থা, বিশিষ্ট ব্যক্তি এবং পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগের সঙ্গেও যোগাযোগ করেছেন। বারাকপুর থানায় দায়ের হয়েছে লিখিত অভিযোগ। কিন্তু সেখান থেকেও কোনওরকম ইতিবাচক সাড়া মেলেনি।

Advertisement

ফলে বাংলা ও বাঙালির হয়ে সরব হওয়ার পথ রুদ্ধ। যদিও এত সহজে হাল ছাড়েনি তারা। বহু রাত জেগে অনেক চেষ্টা আরর চিন্তাভাবনার পর অবশেষে ভাগ্যের শিকে ছেঁড়ে। ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের হেল্প সেন্টার এবং উল্লিখিত সংস্থাগুলির উদ্যোগে দীর্ঘ চেষ্টার পর গত ১৫ জুলাই নিজেদের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টটি ফিরে পায় বাঙালি-আনা। কঠিন সময়ে যারা পাশে দাঁড়িয়েছিল, তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে নতুন উদ্যমে পথচলা শুরু করেছে বাঙালি-আনা। যদিও কে বা কারা কোন উদ্দেশ্যে পেজটি হ্যাক করেছিল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। গত ২২ জুলাই থানা থেকে অভিযোগও তুলে নেওয়া হয়েছে। তবে নিজেদের এমন ভয়ংকর অভিজ্ঞতার পর সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার নিয়ে আরও সতর্ক থাকারই পরামর্শ দিলেন এই পেজের সদস্যরা।

[আরও পড়ুন: UNESCO ওয়ার্ল্ড হেরিটেজের তকমা পেল হরপ্পা সভ্যতার অংশ ধোলাভিরা, জানুন এর ইতিহাস]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ