BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ঘৃণা ছড়ানো রুখতে উদ্যোগ, এবার বিকৃত পোস্ট চিহ্নিত করবে ফেসবুক

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 27, 2020 12:33 pm|    Updated: June 27, 2020 12:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘৃণা ছড়ানো রুখতে নয়া উদ্যোগ নিল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। টুইটারের ধাঁচেই এবার থেকে ট্যাগ বসিয়ে সতর্ক করা হবে ফেসবুকে। শুক্রবার এই কথাই জানালেন খোদ ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ (Mark Zuckerberg)।

বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে ক্রমেই সোচ্চার হচ্ছে বিশ্ব। ‘ব্ল্যাক লাইফ ম্যাটারস’ (Black life matters) স্লোগানে এই প্রতিবাদের উত্থান আমেরিকাতে হলেও আজ তা বিশ্বের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে। কালো আর ধলোর উর্দ্ধেও যে মানুষের পরিচয় তা জানাতেই শিক্ষিত সমাজকে আজ প্রতিবাদ জানাতে হচ্ছে। ফলে চাপের মুখে পড়ে একাধিক বড় সংস্থা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তাদের বিজ্ঞাপন সরিয়ে নিচ্ছে। ইতিমধ্যেই কিছু নামী সংস্থা তাদের পণ্যের নামও পরিবর্তন করে ফেলছেন। তাই কোনও ঘৃণ্য পোস্ট যাতে না ছড়ায় এবার সেই উদ্যোগই নিলেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ। শুক্রবার জুকারবার্গ জানিয়েছেন যে, পাঠযোগ্য পোস্টও যদি তা সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মের নিয়ম ভাঙে তাহলে ব্যবহারকারীকে সতর্ক করা হবে। তার জন্য বিশেষ কিছু ট্যাগ ব্যবহার করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন:দিল্লিতে সংক্রমণ রোধে নয়া উদ্যোগ, শুরু হল গণ-নমুনা পরীক্ষা]

জুকারবার্গ আরও বলেন, “বর্ণবাদ, জাতিবাদ, সাম্প্রদায়িক, শারীরিক বা যৌন হেনস্থামূলক, লিঙ্গ বৈষম্যমূলক বিষয়বস্তু রয়েছে এমন যেকোনও কিছু রুখতে নতুন এই পদ্ধতি কার্যকর করা হবে। এমনকি উদ্বাস্তুদেরও যাতে কোনও রকমের ঘৃণার শিকার না হতে হয় সে ব্যাপারেও ফেসবুক নিজস্ব ভূমিকা পালন করবে।” ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতার কথায়, “প্রতি বছর কোটি কোটি টাকা খরচ করা হয় এই ধরনের স্পর্শকাতর বিষয়গুলিকে রুখতে। এই নীতি পর্যালোচনা করে নতুন আর কী কী পদক্ষেপ নেওয়া যায় সে ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরাও পরামর্শ দিচ্ছেন। সেই অনুযায়ী ঘৃনা ছড়ানো পোস্টগুলিতে নতুন ট্যাগ বসিয়ে লেবেল করার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।”

[আরও পড়ুন:তামিলনাড়ুতে পুলিশ হেফাজতেই মৃত্যু বাবা-ছেলের, খুনের অভিযোগ পরিবারের, সরগরম রাজনীতি]

এই নয়া নিয়ম অনুযায়ী, ফেসবুক ব্যবহারকারীরা কোনও কিছু পোস্ট করতে পারবেন। কিন্তু শেয়ার করার সময় তাঁদের জানান দেওয়া হবে যে, তাঁর পোস্ট করা ছবি, টেক্সট বা ভিডিওতে ফেসবুকের নিয়ম লঙ্ঘন করার শব্দ, বাক্য ও বিষয়বস্তু রয়েছ। সেক্ষেত্রে বিশেষ কিছু ট্যাগ ব্যবহার করা হবে যা দিয়ে এই ধরনের পোস্ট চিহ্নিত করা হবে। তবে বাকিরা সেই পোস্ট দেখতে পারবেন। টুইটারের ধাঁচে তা মুছে দেওয়া হবে না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement