BREAKING NEWS

৩০ আশ্বিন  ১৪২৮  রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ইনস্টাগ্রামের নয়া স্টিকারে শিবের হাতে মদের গ্লাস! FIR দায়ের বিজেপি নেতার

Published by: Biswadip Dey |    Posted: June 9, 2021 12:15 pm|    Updated: June 9, 2021 1:32 pm

FIR Against Instagram For Showing Objectionable Lord Shiva Sticker | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভগবান শিবের (Lord Shiva) অবমাননা করা হয়েছে। আহত হয়েছে হিন্দু ভাবাবেগ। এই অভিযোগে এফআইআর দায়ের হল ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে। দিল্লির বিজেপি (BJP) নেতা মণীশ সিং নয়াদিল্লির পার্লামেন্ট স্ট্রিট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মঙ্গলবার। তাঁর অভিযোগ, এর ফলে হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে।

ঠিক কী অভিযোগ ইনস্টাগ্রামের (Instagram) বিরুদ্ধে? একটি স্টিকারকে ঘিরেই জমেছে ক্ষোভ। সেখানে শিবের এক হাতে মদের গ্লাস ও অন্য হাতে মোবাইল ফোন দেখা গিয়েছে। ইনস্টাগ্রামে স্টোরি আপলোড করার সময় শিবের ছবি সার্চ করলেই ছবিটি দেখা যাচ্ছে। এবং দেখা গিয়েছে সেটি আপলোড করা হয়েছে ইনস্টাগ্রামের তরফেই, কোনও ইউজার করেননি। ফলে অভিযোগের তির পুরোপুরি ইনস্টাগ্রামের দিকেই। আর তাই ইনস্টাগ্রামের সিইও-সহ অন্যান্য আধিকারিকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়েছে এফআইআর। মণীশ জানিয়েছেন, স্টিকারটি না সরানো হলে তিনি ইনস্টাগ্রামের দপ্তরের সামনে গিয়ে ধরনায় বসবেন। কেবল মণীশই নন, আরও অনেকেই আপত্তি জানিয়েছেন হিন্দু দেবতার এমন স্টিকারের বিরুদ্ধে। 

[আরও পড়ুন: লাদাখ সীমান্তে ফের আগ্রাসী গতিবিধি চিনের, সীমান্তের পাশেই মহড়া লালফৌজের]

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ডিজিটা‌ল কনটেন্ট সংক্রান্ত নয়া নির্দেশিকা জারি করেছিল ইলেকট্রনিক্স ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক। সোশ্যাল মিডিয়ায় রাশ টানতেই ওই একগুচ্ছ নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল। উদ্দেশ্য ছিল, সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলি যেন তাদের কনটেন্ট সম্পর্কে দায়িত্ববান ও দায়বদ্ধ থাকেন তা নিশ্চিত করা। কেবল সোশ্যাল মিডিয়াই নয়, ওটিটি প্ল্যাটফর্ম নিয়েও গাইডলাইন প্রকাশ করা হয় সেই সময়। কেন্দ্রের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় যেসব আপত্তিকর ভাষা ও বিষয়বস্তু দেখা যাচ্ছে তা এবার থেকে সরকার আর অনুমোদন করবে না। জানিয়ে দেওয়া হয় আপত্তিকর পোস্ট হিসেবে চিহ্নিত হলে সেই কনটেন্ট সরিয়ে নিতে হবে ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে।

যা নিয়ে বিতর্কও তৈরি হয়েছিল। টুইটারের মতো জনপ্রিয় সংস্থা অভিযোগ জানিয়েছে, এর ফলে ইউজারদের বাক স্বাধীনতা লঙ্ঘিত হবে। সেই বিতর্কই এবার নতুন মাত্রা নিল ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে ওই অভিযোগকে কেন্দ্র করে।

[আরও পড়ুন: কর্ণাটকের অফিসিয়াল পতাকার রঙের বিকিনি বিক্রি করছে Amazon, তুঙ্গে বিতর্ক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement