১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সদ্য মা হওয়া মহিলাদের মৃত্যু রুখতে সাবধানী নবান্ন, ‘হাই রিস্ক’ গ্রুপের মা-শিশুর তথ্য দেওয়া হবে পোর্টালে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 15, 2022 1:55 pm|    Updated: May 15, 2022 1:55 pm

Government concerned about death of New mothers, 'High Risk' details given in portal | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি।

ক্ষীরোদ ভট্টাচার্য: মাতৃ মৃত্যুতে রাশ টানতে কড়া ব্যবস্থা নবান্নের (Nabanna)। ‘হাই রিস্ক’ গ্রুপের মা ও শিশুর তথ্য সংগ্রহ করে এবার তা দেওয়া হবে পোর্টালে (Portal), এমন পরিকল্পনা রাজ্য সরকারের। সেই অনুযায়ী স্বাস্থ্যের উন্নতিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা গিয়েছে, ‘হাই রিস্ক’ গ্রুপের আওতায় থাকা মা ও শিশুর যাবতীয় শারীরিক অবস্থা ‘মাতৃমা’ (Matrima ) প্রকল্পের আওতায় পোর্টালে যুক্ত করা হবে। এই কাজের জন্য স্বাস্থ্য দপ্তরের সঙ্গে কাজ করবে ইউনিসেফ ও নারী ও শিশুকল্যাণ দপ্তর। স্থানীয় আশাকর্মীরা সেই পোর্টালের তথ্য দেখে মা ও শিশুর বাড়ি যাবেন। শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করবেন। এরপর যাবতীয় আপডেট পোর্টালে তুলবেন। যাতে তিনটি দপ্তরের শীর্ষকর্তারা জানতে পারেন। পরামর্শ দিতে পারেন।

[আরও পড়ুন: ভুয়ো অ্যাকাউন্ট নিয়ে জটিলতার জের, ঝুলে রইল টুইটারের সঙ্গে এলন মাস্কের চুক্তি]

শনিবার নবান্নে ইউনিসেফ (UNICEF) ও দুই দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে মুখ্যসচিব এইচ কে দ্বিবেদী (Hari Krishna Dwivedi) আলোচনা করেন। সূত্রের খবর, খুব শীঘ্রই এই ব্যবস্থা কার্যকর হবে। জন্মের সময় প্রতিটি নবজাতকের ওজন নেওয়া হয়। নতুন নিয়ম অনুযায়ী সদ্যোজাতর ৭, ১৪, ২১, ২৮ ও ৪২ দিনের মাথায় যে সব শিশু হাই রিস্ক গ্রুপে আছে, তাদের ওজন এবং উচ্চতা নেওয়া হবে। দেখা হবে আশানুরূপ ওজন বাড়ছে কি না?

স্বাস্থ্য দপ্তরের এক কর্তার কথায়, “এই সময়ে শিশুর ওজন ও উচ্চতা যত বাড়বে ততই তার বুদ্ধ্যাঙ্কের বিকাশ হবে। তাই এই সময়টা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই সময়ে শিশুটি ঠিকমতো স্তন্যপান করছে কি না অথবা মায়ের কোনও নতুন উপসর্গ হচ্ছে কি না-তাও নথিভুক্ত করা হবে। সেই অনুযায়ী চিকিৎসা হবে।”

[আরও পড়ুন: ‘কেউ কাটমানি নিয়ে কাজ করেন? আমাদের জানান’, মমতার ছবি দিয়ে নেটদুনিয়ায় ঘুরছে ভুয়ো মেসেজ!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে