BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  রবিবার ২৯ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারত থেকে ব্যবসা গুটিয়ে নিচ্ছে ভোডাফোন! কী বলছে টেলিকম সংস্থা?

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 1, 2019 6:31 pm|    Updated: November 1, 2019 6:32 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জিও আসার পর থেকেই ব্যবসা কমছে ভোডাফোনের। গত কয়েক মাসে চূড়ান্ত লোকসানের সম্মুখীন হতে হয়েছে সংস্থাকে। যার জেরে এবার নাকি ভারত থেকে ব্যবসা গুটিয়ে নিতে চাইছে ব্রিটিশ টেলিকম সংস্থা। বৃহস্পতিবার এমনটাই দাবি করে একটি সংবাদসংস্থা। এরপরই সেই খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে নেটদুনিয়ায়। রীতিমতো আতঙ্কিত হয়ে যান লক্ষ লক্ষ ভোডাফোন গ্রাহক। এই খবরের প্রেক্ষিতে অবশেষে মুখ খুলল ভোডাফোন। সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হল, ব্যবসা গোটানোর খবর ভুয়ো এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। সংস্থার প্রতি বিদ্বেষ থেকেই এমনটা ছড়ানো হয়েছে।


সম্প্রতি এক সংবাদসংস্থা দাবি করে, ভোডাফোন যে কোনও মুহূর্তে ব্যবসা গুটিয়ে ভারত ছাড়তে পারে। সংস্থা দেশ ছাড়ার প্রস্তুতিও শুরু করেছে। প্রতিমাসে ব্যাপক লোকসানের দায় সামলানোর চেয়ে ব্যবসা গুটিয়ে নেওয়ায় শ্রেয় মনে করছে সংস্থা। ওই সংবাদসংস্থার দাবি, গত কয়েক মাসে কয়েক লক্ষ গ্রাহক কমে গিয়েছে ভোডাফোনের। সংস্থার সঙ্গী আইডিয়ারও একই অবস্থা। দুটি সংস্থাই প্রচুর লোকসানের মুখ দেখছে। যার জেরে একপ্রকার বাধ্য হয়েই ভারতের বাজার ছাড়ছে একসময়ের অত্যন্ত জনপ্রিয় টেলিকম সংস্থা।

[আরও পড়ুন: রতিমাসে ৩৫ টাকা রিচার্জ আর বাধ্যতামূলক নয়, নতুন অফার ভোডাফোনের]

গোদের উপর বিঁষফোড়া হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের রায়। গত ২৫ অক্টোবর সুপ্রিম কোর্টের একটি রায়ে বলা হয়, ভোডাফোন-আইডিয়াকে লাইসেন্স ফি এবং স্পেকট্রামের দাম বাবদ অতিরিক্ত প্রায় ৩৯ হাজার কোটি টাকা মেটাতে হবে। তাও আবার তিন মাসের মধ্যে। যা এই সংস্থার উপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করে। এরপরই জল্পনা ছড়ায় ব্যবসা গোটাতে চাইছে ব্রিটিশ টেলিকম সংস্থা।

[আরও পড়ুন: যৌন চাহিদা বাড়িয়ে তুলছে এই সব ইমোজি, ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি ফেসবুকের]


কিন্তু সেসব খবর উড়িয়ে দিয়েছে সংস্থা। লোকসানের কথা স্বীকার করে নিলেও তাঁরা যে এখনই ব্যবসা বন্ধ করার কোনও পরিকল্পনা করেনি তা সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ভোডাফোনের তরফে। ভোডাফোন জানিয়েছে সংস্থা সাময়িকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। কিন্তু, সেজন্য কারও কাছে অতিরিক্ত ঋণ চাওয়া হয়নি। ব্যবসা গুটিয়ে নেওয়ার খবর উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং ভুয়ো।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement