BREAKING NEWS

৫ কার্তিক  ১৪২৮  শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আত্মনির্ভরতার পথে আরও একধাপ, টুইটারকে টেক্কা দিতে হাজির ‘স্বদেশি’ Tooter

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 24, 2020 11:08 pm|    Updated: November 24, 2020 11:08 pm

Tooter is an Indian Social Media Platform Modelled After Twitter Surfaces | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার পর থেকেই স্বদেশি অ্যাপের দিকে ঝুঁকছে দেশবাসী। ভিডিও তৈরি করার অ্যাপ টিকটক থেকে অনলাইন গেম PUBG- সবকিছুরই বিকল্প অ্যাপ তৈরি করে ফেলছেন ভারতীয় প্রযুক্তিপ্রেমীরা। কেন্দ্রের ডাকে প্রযুক্তির দিক থেকে আত্মনির্ভর হয়ে ওঠার চেষ্টায় দেশ। আর এবার সেই লক্ষ্যে আরও একটি পদক্ষেপ করা হল। টুইটারকে টেক্কা দিতে হাজির দেশি অ্যাপ Tooter। যা আচমকাই টুইটারে ট্রেন্ডিং হয়ে যায়।

শোনা যাচ্ছে, এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মটি মূলত টুইটারকে পাল্লা দিতে তৈরি বলেই তার নামকরণ এমনটা করা হয়েছে। রঙের ক্ষেত্রেও সামঞ্জস্য রয়েছে। এখানেও সাদা ও নীল দিয়েই লেখা হয়েছে অ্যাপের নাম। ব্যবহারের পদ্ধতিও একইরকম। প্রথমে ই-মেল আইডি দিয়ে এই প্ল্যাটফর্মে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। তারপর অন্যাদের অ্যাকাউন্ট ফলো করা যাবে। ইচ্ছে মতো গ্রুপ তৈরি ও যাদের ফলো করতে চান, সেই তালিকা নিজের পছন্দ মতো বানিয়ে নেওয়া যাবে। টুইটারের পোস্টগুলিকে যেমন টুইট বলা হয় তেমনই টুটারের পোস্টগুলির পোশাকি নাম টুটস্ (toots)। অ্যাপের পাশাপাশি ওয়েবসাইট থেকে গিয়েই ব্যবহার করা যাবে টুটার। ইতিমধ্যেই গুগল প্লে-স্টোরে এসে গিয়েছে এই নয়া অ্যাপ। চাইলেই ডাউনলোড করে নিতে পারেন। তবে অ্যাপেল স্টোরে তা এখনও দেখা যাচ্ছে না।

[আরও পড়ুন: ফের ‘ড্রাগনে’র বিরুদ্ধে ডিজিটাল স্ট্রাইক! ৪৩টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করল ভারত]

গত জুনেই অ্যাপটি তৈরি হয়ে গিয়েছিল। তবে দেশের আত্মনির্ভর হয়ে ওঠার আবহেই মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে এটি। শোনা যাচ্ছে, সাধারণ নেটিজেনের পাশাপাশি সেলেবরাও এই প্ল্যাটফর্মে অ্যাকাউন্ট তৈরি করেছেন। তালিকায় রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, অভিনেতা অভিষেক বচ্চন থেকে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি-সহ অনেকেই। অর্থাৎ ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তার সিঁড়ি চড়ছে টুটার। ফেসবুক-টুইটারের মতো অ্যাপের রমরমার মধ্যে এই প্ল্যাটফর্মটি কতটা সাফল্য পায়, তা সময় বলবে। তবে টুইটারে এদিন চর্চার শীর্ষে টুটার। তৈরি হয়েছে নানা মজার মিমও। অনেকেরই দাবি, টুইটারের সঙ্গে পাল্লা দিতে পারবে না এটি। আপনি ডাউনলোড করেছেন নাকি?

[আরও পড়ুন: স্মার্টফোনে সহজ কিছু কাজ করলেই হবে আয়, দেশবাসীর জন্য দুর্দান্ত অ্যাপ আনছে গুগল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement