BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারতীয়দের হোয়াটসঅ্যাপ হ্যাকের চেষ্টা করেছিল ইজরায়েল, প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য

Published by: Sulaya Singha |    Posted: October 31, 2019 5:13 pm|    Updated: October 31, 2019 5:20 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তথ্য ফাঁসের অভিযোগে বিপাকে একসময় পড়তে হয়েছিল মার্ক জুকারবার্গের ফেসবুককে। ফের সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। এবার হ্যাকারদের নিশানায় ছিল হোয়াটসঅ্যাপ। ভারতে হোয়াটসঅ্যাপ ইউজারদের উপর নজরদারির চেষ্টা চালাচ্ছিল ইজরায়েল। স্বীকার করে নিল কর্তৃপক্ষ।

চলতি বছরের এপ্রিল থেকে ২০টি দেশের প্রায় ১৪০০ ইউজারের অ্যাকাউন্টে স্পাইওয়্যার ঢোকানোর চেষ্টা করেছিল ইজরায়েলের একটি সংস্থা। তাদের মূল টার্গেট ছিল সাংবাদিক, উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মী, মানবাধিকার সংগঠনের আধিকারিক এবং কূটনীতিবিদরা। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই ইজরায়েলের সাইবার সুরক্ষা সংস্থা এনএসও-র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে মার্ক জুকারবার্গের কোম্পানি। যদিও ইজরায়েলের সংস্থা সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। তারাও পালটা মামলা করার কথা জানিয়েছে। যে সব ভারতীয়র অ্যাকাউন্ট হ্যাকের চেষ্টা করা হয়েছিল, প্রত্যেককে বিষয়টি জানিয়ে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ।

[আরও পড়ুন: যৌন চাহিদা বাড়িয়ে তুলছে এই সব ইমোজি, ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি ফেসবুকের]

এই স্পাইওয়্যার আসলে কী? স্পাইওয়্যার আসলে একটি সফটওয়্যার, যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীর সমস্ত ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করা যায়। অজান্তেই ব্যবহারকারীর মোবাইল, কম্পিউটার বা ল্যাপটপে ঢুকে তাঁর পাসওয়ার্ড, কনট্যাক্ট লিস্ট বা ফোন নম্বরের তালিকা, ক্যামেরা, ছবি-সহ প্রায় সব তথ্যই হাতিয়ে নেওয়া যায়। হোয়াটসঅ্যাপের ক্ষেত্রে স্পাইওয়্যারের নাম ছিল পেগাসাস। যা ভিডিও কলের সময় ঢোকার চেষ্টা করে। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে তার আগেই গোটা বিষয়টি ধরে ফেলে হোয়াটসঅ্যাপের সুরক্ষা প্রযুক্তি। ফলে ইজরায়েলি সংস্থার লক্ষ্যপূরণ হয়নি।

জনপ্রিয় এই মেসেজিং অ্যাপ এন্ড টু এন্ড এনক্রিপ্টেড। অর্থাৎ চ্যাট, ভিডিও বা ভয়েস কলের কোনও তথ্য তৃতীয় ব্যক্তি জানতে পারবেন না। ফলে বেশ স্বস্তিতেই এই অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন ইউজাররা। কিন্তু এবার নতুন তথ্য সামনে আসায় ফের প্রশ্নের মুখে ইউজারদের তথ্যের নিরাপত্তা। যদিও হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ আশ্বস্ত করেছে, প্রত্যেকের অ্যাকাউন্ট আগের মতোই সুরক্ষিত। গোটা বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবি শংকর প্রসাদ। তিনি জানান, কীভাবে ও কেন ইউজারদের এমন সমস্যায় পড়তে হল, হোয়াটসঅ্যাপের থেকে তা বিস্তারিত জানতে চাওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রতিমাসে ৩৫ টাকা রিচার্জ আর বাধ্যতামূলক নয়, নতুন অফার ভোডাফোনের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement