BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

জীবনে যখন মায়ের কথা সবচেয়ে বেশি মনে পড়ে আপনার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 3, 2018 8:04 pm|    Updated: July 11, 2018 4:18 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মা। ছোট্ট শব্দেই যেন লুকিয়ে সন্তানের গোটা পৃথিবী। প্রথম চোখ মেলা, প্রথম কথা বলা, প্রথম হাঁটতে শেখা, দুনিয়াকে চিনতে শেখাটা মায়ের সঙ্গেই। অথচ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নাড়ির এ টান আলগা হতে থাকে। বয়স যত বাড়ে, বাইরের মোহময় হাতছানিগুলিই যেন মানুষের জীবনে প্রাধান্য পেতে শুরু করে। কিন্তু প্রত্যেক উত্থানের পতনও থাকে। আর এই পতন যখন হয়, তখনই ফের পায়ের তলায় মাটি খোঁজে মানুষ। ফিরে যায় নিজের সবচেয়ে নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে। মা।

[আপনার WhatsApp-এর অভিজ্ঞতাকে বদলে দিতে আসছে নয়া ফিচার]

পরীক্ষার চাপ: জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা। বাকি সব তো ঠিক আছে। কিন্তু অঙ্ক? সে তো মাথার উপর দিয়ে রকেটের মতো উড়ে যায়। রিকশয় বসেও যেন হাত-পা ঠান্ডা হয়ে আসছে। হঠাৎ একটা গরম হাতের ছোঁয়া এল। পাশে তাকিয়ে দেখলেন মায়ের মুখে নিশ্চিন্তের হাসি। মুখের ছোট একটা কথা, ‘সব ঠিক হবে’। চাপে কয়েক শতাংশ তো হালকা হয়েইছে!

175258920

বিচ্ছেদ: এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর যিনি প্রেম করেছেন অথচ ব্যথা পাননি। আর ব্যথা পেলে সবার আগে মায়ের কথাই মনে পড়ে। ‘এমন বন্ধু আর কে আছে’ যিনি আপনার মনের কথা সবচেয়ে ভাল বুঝতে পারেন। তাঁর কাছেই মনের সব কথা খুলে বলা যায়। আর এই মানুষটাই আপনাকে সবচেয়ে ভাল বুঝতে পারেন।

break-up_web

প্রথম চাকরি: প্রথম চাকরি মানেই জীবনের অন্যতম সেরা অভিজ্ঞতা। বন্ধু-বান্ধব তো অনেক আছে। কিন্তু দেখবেন, জীবনের সমস্ত ক্ষেত্রে যে মানুষটা পাশে ছিলেন তাঁকেই সকলের আগে খবরটা দিতে ইচ্ছে করবে। তাঁর গলার আনন্দটা উপভোগ করবেন।

First-Job

অফিসের টেনশন: অফিসটা যেন দিনের পর দিন দুর্বিষহ হয়ে উঠছে। আপনারই চারদিকে রাজনীতির খেলা চলছে। তাতে যেন না চেয়েও ফেঁসে যাচ্ছেন। যে কোনও মুহূর্তে চাকরি চলে যেতে পারে। সামাজিক সম্মানের কী হবে? এই প্রশ্ন বাড়িতে এসেও মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে। কাউকে কিছু বলতেও পারছেন না। যখন-তখন রেগে যাচ্ছেন। কেমন করে যেন মা টের পেয়ে গেলেন। পৃথিবীকে আপনার চেয়ে অনেক আগে থেকে দেখছেন তিনিই। পরামর্শ তিনিই সবচেয়ে ভাল দিতে পারবেন।

Handling-stress-at-the-workplace

দাম্পত্য কলহ: শ্বশুরবাড়ি সুখের হওয়া ভাগ্যের ব্যাপার। বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে। অনেক মেয়েই সমাজ, পরিবারের সম্মানের কথা ভেবে চুপ করে সহ্য করেন। কিন্তু তা চুপ করে থাকার বিষয় নয়। অন্য কারও কাছে পরামর্শ নেওয়ার বিষয়। আর এক্ষেত্রে মায়ের মতো বন্ধুর কোনও বিকল্প নেই। মা-ই আপনাকে নিরপেক্ষভাবে বলতে পারবেন কোনটা ঠিক, কোনটা বেঠিক।

Can12WcUcAQNmSg

[সঙ্গী কি আদৌ ঘর বাঁধতে ইচ্ছুক, বুঝবেন কীভাবে?]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement