BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বন্ধ হওয়ার পরও ভারতে একশো কোটি বিনিয়োগ করছে ‘টিকটক’

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 22, 2019 5:28 pm|    Updated: April 23, 2019 1:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাদ্রাজ হাই কোর্টের নির্দেশে ভারতে পুরোপুরি ভাবে টিকটক অ্যাপ ডাউনলোড করা নিষিদ্ধ করেছে গুগল। প্লে-স্টোরে থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করার সব রকমের ব্যবস্থা বন্ধ করেছে বিশ্বের জনপ্রিয় এই সার্চ ইঞ্জিনটি৷ কিন্তু তাতে কি! এত সহজে ভারতের বাজার ছাড়তে নারাজ ‘টিকটক’-এর নির্মাতা সংস্থা ‘বাইটডান্স’৷ বরং আগামী তিন বছরের জন্য এই অ্যাপটিতে একশো কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে চলেছে সংস্থাটি৷

[আরও পড়ুন: বিদ্যুৎ ছাড়াই এবার বরফ হবে গরম জল, জানেন কীভাবে? ]

সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সংস্থার ডিরেক্টর হেলেনা লার্স জানান, টিকটক ব্যবহারকারীদের কথা গোপনীয়তার কথা মাথায় রেখে গত কয়েক মাসে সিকিউরিটি পলিসিতে বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছে বাইটডান্স৷ নিয়মবিধিকে অনেক বেশি শক্তিশালী করেছে সংস্থা। এখানেই শেষ নয়, মাদ্রাজ হাই কোর্টের নির্দেশ নিয়েও মুখ খোলেন তিনি৷ বলেন, “যা ঘটেছে, তার জন্য অবশ্যই আমরা হতাশ৷ তবে একই সঙ্গে আমরা আশাবাদীও৷ আগামী দিনে আমরা সমস্যার সমাধান করব বলে বিশ্বাস করি। কারণ আমরা ভারতীয় ব্যবহারকারীদের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ঠিক সেজন্যই আগামী তিন বছরে ভারতে আমরা ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ বিনিয়োগ করব”।

[আরও পড়ুন: সাবধান! ফেসবুক থেকে ফাঁস হতে পারে আপনার ইনস্টাগ্রামের পাসওয়ার্ডও]

গান থেকে অভিনয়, এই ভিডিও অ্যাপে বিনোদনের অন্ত নেই। মজার মজার ভিডিও তৈরি করা যায় এখানে। ফলে যতদিন গড়িয়েছে, জনপ্রিয় হয়েছে এই অ্যাপ। চলতি বছর জানুয়ারিতে এদেশে তিন কোটিরও বেশি মানুষ এটি ইনস্টল করেছে। ফেব্রুয়ারিতে ২৪০ মিলিয়ন বার ডাউনলোড হয়েছে অ্যাপটি। পরিসংখ্যানেই স্পষ্ট, অল্প সময়ে ঠিক কতখানি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে টিকটক। কিন্তু অনেকেই অভিযোগ তোলেন, টিকটক অ্যাপটি যুবপ্রজন্মকে পর্নের প্রতি আকৃষ্ট করছে। কমবয়সিদের উপর এর খারাপ প্রভাব পড়ছে। ফলে যতদ্রুত সম্ভব, অ্যাপটি বন্ধ করে দেওয়ার দাবি ওঠে এবং সেই দাবিতেই সিলমোহর দেয় মাদ্রাজ হাই কোর্ট৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement