২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ১৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

পার্টনার অন্য কোথাও ব্যস্ত নয় তো? এভাবেই নজর রাখুন হোয়াটসঅ্যাপে

Published by: Sulaya Singha |    Posted: December 16, 2018 6:22 pm|    Updated: December 16, 2018 6:22 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আপনার চোখের আড়ালে বয়ফ্রেন্ড ঠিক কী করছেন? আপনাকে ফাঁকি দিয়ে গার্লফ্রেন্ড অন্য কারও সঙ্গে ব্যস্ত নয় তো? এসব প্রশ্ন অনেক কাপলের মাথাতেই ঘুরপাক খেতে থাকে। মাথাকে শান্ত করা গেলেও মনকে সবসময় বুঝিয়ে ওঠা যায় না। আর তখনই শুরু হয় নজরদারি। হোয়াটসঅ্যাপই যখন প্রেমিক-প্রেমিকার যোগাযোগের সেরা মাধ্যম, তখন সেই অ্যাপের মাধ্যমেই বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ড উপর নজর রাখেন। কিন্তু জানেন কি, হোয়াটসঅ্যাপে ঠিক কীভাবে ধাওয়া করা যাবে পার্টনারকে? না, এই প্রতিবেদন একেবারেই স্টক করাকে সমর্থন জানাচ্ছে না। শুধু পদ্ধতিগুলি আপনার সামনে তুলে ধরা হচ্ছে।

লাস্ট সিন: বয়ফ্রেন্ড বা স্বামীর প্রতি আপনি খুব পজেসিভ? সেখান থেকেই মনে জাগে সন্দেহ? সেক্ষেত্রে অনেকেই হোয়াটসঅ্যাপে পার্টনারের লাস্ট সিনের দিকে চোখ রাখেন। অর্থাৎ, শেষ কখন তিনি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেছেন তা আপনার কাছে পরিষ্কার হয়ে যাবে। তবে এর সমাধানও রয়েছে। সেটিংস থেকে লাস্ট সিন অপশনটি বন্ধ করে রাখতে পারেন।

[পারথ টেস্টের তৃতীয় দিনের শেষে চাপে ভারত]

ব্লু টিক: জোড়া টিক চিহ্ন নীল হয়ে যাওয়ার অর্থ পার্টনার আপনার মেসেজ পেয়েছেন। তা সত্ত্বেও যদি উত্তর না পান, তবে ভাবতেই পারেন আপনাকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা হচ্ছে। সাক্ষাৎ হলেই পার্টনারকে প্রশ্নের মুখে ফেলতেই পারেন। তবে, এরও প্রতিকার রয়েছে। ব্লু টিক অপশনটি বন্ধ রাখার কৌশলও কিন্তু লুকিয়ে সেটিংসের মধ্যেই।

অনলাইন: হোয়াটসঅ্যাপের এই অপশনটি লুকিয়ে রাখার উপায় নেই। তাই আপনি কোনও বার্তা পাঠানোর পরও যদি দেখেন পার্টনার অনলাইন রয়েছেন, কিন্তু রিপ্লাই করছেন না, তখন কিন্তু অন্যরকম গন্ধ পেতেই পারেন। আর সেই চ্যাটের সময় যদি হয় গভীর রাতে, তবে তো সন্দেহের অবকাশ নেই।

স্টেটাস: সঙ্গীর উদ্দেশে কোনও স্টেটাস দিন। ছবি, ভিডিও বা কোনও লেখা। খেয়াল রাখুন সঙ্গী তা দেখলেন কিনা। যদি না দেখেন তাহলে বুঝবেন তিনি অন্য কোথাও বেশি ব্যস্ত। আর দেখেও যদি রিপ্লাই না আসে তবে বুঝে যান, আপনার স্টেটাস নিয়ে তাঁর আর বিশেষ মাথা ব্যথা নেই।

[আগামী বছরই বাজারে আসছে স্যামসংয়ের ১২ ফুট চওড়া টিভি, দাম কত?]

থার্ড-পার্টি অ্যাপ: হতেই পারে আপনার পার্টনার দারুণ স্মার্ট। হোয়াটসঅ্যাপের যাবতীয় বিষয় কীভাবে লুকিয়ে রাখতে হয়, সেবিষয়ে তিনি সিদ্ধহস্ত। তাতে কী? আপনিও স্মার্ট হয়ে যান। গুগল প্লে-স্টোরে এমন অনেক থার্ড পার্টি অ্যাপ আছে, যা ব্যবহার করে আপনি সঙ্গীর হোয়াটসঅ্যাপের সব খুঁটিনাটিই বের করে নিতে পারেন অনায়াসে। তবে এই প্রতিবেদনে এমন কোনও অ্যাপের উল্লেখ করা হল না। নিজে ঝুঁকি নিয়েই খুঁজে বের করুন।

তবে সন্দেহ যতই থাক, ভালবাসার ভিত তো বিশ্বাসই। সেই বিশ্বাস থাকলে পরস্পরের প্রতি ভালবাসাও থাকবে অটুট। তা সে একটি অ্যাপ যা ইঙ্গিতই করুক না কেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement