১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খোলামেলা বাড়ি৷ বাড়ির পাশে বাগান৷ এখন এই ভাবনা ভুলেছে গৃহস্থ৷ বেশিরভাগ মানুষেরই এখন বাস এক বা দু’কামরার ফ্ল্যাটে৷ কিন্তু ফ্ল্যাট বাড়ির বাসিন্দারাও তো চান সবুজের স্বাদ পেতে৷ আর তাই আপনিও বাড়িতে রাখতেই পারেন ক্যাকটাস৷ টবেই অনায়াসে বসাতে পারেন কাঁটা গাছ ক্যাকটাস৷ কাঁটা হলেও, ক্যাকটাসের রয়েছে অন্যরকম সৌন্দর্য৷ যা মুগ্ধ করে সকলকেই৷ আজকাল মোটামুটি সব নার্সারিতেই পাওয়া যায় ক্যাকটাস৷ চাইলে নার্সারি থেকে খুঁজে নিতে পারেন বিদেশ থেকে আমদানি করা ক্যাকটাসও৷ তবে তার আগে এই কাঁটা গাছের যত্ন সম্পর্কে আপনাকে জানতেই হবে৷

[কম খরচে দ্রুত ফসল পেতে ‘থুতি’ পদ্ধতিতে চাষের বিকল্প নেই]

আবহাওয়ার সঙ্গে মিলিয়ে ক্যাকটাস কিনুন: ক্যাকটাস তো বাড়িতে রাখবেন, কিন্তু তার আগে জেনে নিন আপনার বাড়ির আবহাওয়া৷ তারপর ওই আবহাওয়া অনুযায়ী ক্যাকটাস দিয়ে বদলে ফেলুন বাড়ির চেহারা৷ আপনার বাড়িতে যদি রোদের আনাগোনা বেশি হয়, তবে বাড়িতে আনুন বেশি কাঁটাযুক্ত ক্যাকটাস৷ আর আপনার বাড়িতে রোদ কম পৌঁছালেও কোন সমস্যা নেই৷ যে ক্যাকটাস কম রোদে বাঁচে বেছে নিন সেটিই৷ আবহাওয়া অনুযায়ী ক্যাকটাস না কিনলে মাটি হয়ে যেতে পারে আপনার পরিশ্রম৷ বাড়ির সৌন্দর্য বাড়ানোর পরিবর্তে, মারাও যেতে পারে এই কাঁটা গাছ৷

[মাটির বদলে পাইপে চাষ, ভিন্ন ধারার কৃষি পদ্ধতিতে মিলছে সাফল্য]

মাটি: দু’ভাগ বালি ও একভাগ পুরনো মাটি টবে নিতে হবে৷ ক্যাকটাস বেড়ে ওঠার জন্য খুব বেশি জলের প্রয়োজন হয় না৷ তাই এমন মাটি প্রয়োজন, যাতে খুব তাড়াতাড়ি জল শুকিয়ে যায়৷ নইলে ক্যাকটাসের গোড়া পচে যাওয়ার আশঙ্কা থেকেই যায়৷ এবার আসি টবের কথায়৷ টবে মাটির গভীরতা যেন খুব বেশি না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে৷ এক্ষেত্রে ক্যাকটাসের অনুপাতে টব বাছাই বাঞ্ছনীয়৷

[জৈব সার দিয়ে উত্তরবঙ্গে স্ট্রবেরি চাষ, মুগ্ধ জাপানের প্রতিনিধিরা]

জল: মূলত মরু অঞ্চলের গাছ ক্যাকটাস৷ তাই এই কাঁটা গাছের পরিচর্যায় খুব বেশি জলের প্রয়োজনীয়তা হয় না৷ ক্যাকটাস বসানোর পর শুরুর দিকে একদিন অন্তর জল দেওয়াই ভাল৷ বর্ষাকালে টবের মাটি ভিজে থাকা পর্যন্ত জল দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই৷ ক্যাকটাসের গায়ে যাতে জল না লাগে, সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে৷ নইলে ছত্রাকের আক্রমণে মারা যেতে পারে ক্যাকটাস৷

[পশ্চিমাঞ্চলের রুখা-শুখা মাটিতে অল্প জলেই তরমুজ চাষ]

ক্যাকটাসের রোগ নির্ণয়: পাতার ওপর মাকড়সার জালের মতো হলেই বুঝতে হবে আপনার বাড়ির সাধের ক্যাকটাস ‘স্পাইডার মাইটস’ রোগে আক্রান্ত৷ তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নিন৷ জল দিয়ে ভাল করে পাতা ধুয়ে ফেলতে হবে৷ রোগ সারাতে ব্যবহার করতে হবে কীটনাশকও৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং