২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইদানিং অনেকেরই স্বপ্ন ডেস্টিনেশন ওয়েডিং। নিমন্ত্রিতদের তালিকা থেকে কিছু কেটে ছেঁটে নিজের পছন্দ মতো জায়গায় বিয়ের আসর সাজানোর দিকে অনেকেরই এখন নজর। ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় গন্তব্য রাজস্থান। কিন্তু জয়পুর, যোধপুর বা উদয়পুরে বিয়ে করতে গেলে বিস্তর খরচ। তাই বিকল্প খোঁজে অনেকেই। আজ রইল তারই সুলুকসন্ধান।

ঋষিকেশ

অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টসের জন্য জনপ্রিয় ঋষিকেশ। কিন্তু ইচ্ছে করলে ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের জন্যও বেছে নেওয়া যায় উত্তরপ্রদেশের এই জায়গাটি। এখানকার পরিবেশ রোমান্সের জন্য আদর্শ। গঙ্গার তীরে, পাহাড়ের কোলে… যে কোনও স্থানে সাজিয়ে ফেলা যেতে পারে বিয়ের আসর। পর্যাপ্ত হোটেলও এখানে রয়েছে। সেদিক থেকেও কোনও অসুবিধা নেই। এমনকী কোনও কোনও হোটেলে তো ওয়েডিং প্যাকেজও রয়েছে। সস্তায় চাইলে সেই ব্যবস্থাও যে নেই, তা নয়। একাধিক হোটেলে কম টাকায় ওয়েডিং প্যাকেজের সুবিধা পাওয়া যায়।

[ আরও পড়ুন: নির্জন সমুদ্রতট ও নৈসর্গিক দৃশ্যপট উপভোগ করতে গন্তব্য হোক দারচিনি দ্বীপ ]

বারাণসী

ধর্মস্থান হিসেবে এই জায়গার খ্যাতি রয়েছে। কিন্তু চাইলে এখানেও করা যায় ডেস্টিনেশন ওয়েডিং। বরং বিয়ের জন্য এর চেয়ে আদর্শ জায়গা মেলা ভার। অন্যান্য জায়গায় সুন্দর প্রকৃতি ইউএসপি। কিন্তু এখানে সন্ধেবেলা গঙ্গার ঘাটে আরতির ধ্বনি বা ভক্তিমূলক পরিবেশ বিয়েতে অনুঘটকের কাজ করবে।

কেরল

এমনিতেই রোম্যান্টিক জায়গা হিসেবে কেরলের কোনও তুলনা নেই। তাই ওয়েডিং ডেস্টিনেশন হিসেবেও এর তুলনা হয় না। এখানকার সবচেয়ে আকর্ষণীয় জায়গা হল মুন্নার। তবে বেনারস বা ঋষিকেশের চেয়ে এখানে টাকা খসার সম্ভাবনা একটু বেশি। তবে বাজেট খুব কম না থাকলে মুন্নার জায়গাটিকে ওয়েডিং ডেস্টিনেশন হিসেবে বেছে নেওয়াই যায়। কেরলে বিয়ে করার আরও একটি সুবিধা হল ট্র্যাডিশনাল বোট। এখানকার নৌকায় বিয়ের আসর সাজালে মন্দ হয় না। বেশ একটা অন্য ধরনের অভিজ্ঞতা হয়।

kerala

শেখাবতী

জায়গাটি রাজস্থানে। তবে যোধপুর বা উদয়পুরের মতো খরচ এখানে গেলে হবে না। এখানে গেলে সনাতনী রাজস্থানের ছোঁয়া পাওয়া যাবে। তার উপর খরচও অনেক কম। এখানকার ফ্রেস্কো চোখ টানবে। এমন পরিবেশে বিয়ে করার মধ্যে একটা রাজকীয় ব্যাপার রয়েছে। আর পকেটে টান যেহেতু কম পড়বে, তাই অর্থচিন্তাও তেমন থাকবে না।

উত্তর ভারত

উত্তর ভারতে পাহাড়ের কোলে যে কোনও শহরে সাজানো যেতে পারে বিয়ের আসর। মুসৌরি, মানালি, শিমলা, দেরাদুন, নৈনিতালের মতো জায়গা রাখতে পারেন তালিকায়। এখানে একাধিক রিসর্ট ও হোটেল রয়েছে। সেখানে বিয়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও রয়েছে। রয়েছে ওয়েডিং প্যাকেজের ব্যবস্থাও। আর এখানে খরচও খুব বেশি নয়। উপরন্তু পাহাড়িযা পরিবেশে চেটেপুটে উপভোগ করা যাবে বিয়ে।

[ আরও পড়ুন: ঘরের কাছেই স্বর্গ, সপ্তাহান্তে প্রকৃতির কোলে সময় কাটান এই পাঁচ জায়গায় ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং