BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বৈষ্ণোদেবী দর্শনে পৌঁছে যেতে পারবেন হেলিকপ্টারেও, জেনে নিন কীভাবে করবেন বুকিং

Published by: Sulaya Singha |    Posted: August 25, 2020 2:11 pm|    Updated: August 25, 2020 3:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার জেরে এবছরের মতো বাতিলই করে দেওয়া হয়েছে কেদারনাথ যাত্রা। হাজার হাজার তীর্থযাত্রীদের সুরক্ষার কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে নিউ নর্মালে বৈষ্ণোদেবী (Vaishno Devi) দর্শন করতে যেতেই পারেন। এবার করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে বৈষ্ণো মায়ের দর্শনের জন্য অনেকেই হেলিকপ্টারেই জম্মু ও কাশ্মীর পৌঁছে যেতে চাইছেন। কিন্তু হেলিকপ্টার সফরের জন্য কোথা থেকে কোন দিনের মধ্যে টিকিট বুক করতে হবে? চলুন জেনে নেওয়া যাক।

মাতা বৈষ্ণোদেবী শ্রিন বোর্ডের সিইও রমেশ কুমার জাঙ্গিড় জানিয়েছেন, ২৬ আগস্ট অর্থাৎ বুধবার থেকে হেলিকপ্টার বুকিং শুরু হচ্ছে। চলবে ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। maavaishnodevi.org -এই অফিসিয়াল সাইটে গিয়ে অনলাইনে টিকিট কেটে নিতে পারবেন তীর্থযাত্রীরা। সেখানেই খরচ এবং সফর সংক্রান্ত সব তথ্য দেখে নিতে পারবেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: হাতছানি দিচ্ছে দার্জিলিং, করোনা আতঙ্ক কাটিয়ে সেপ্টেম্বরেই খুলছে পাহাড়ের সব পর্যটনকেন্দ্র]

চার মাস বন্ধ থাকার পর গত ১৬ আগস্ট সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে বৈষ্ণোদেবীর দ্বার। তবে মহামারীর কথা মাথায় রেখে এবার জম্মু ও কাশ্মীরের বাইরে থেকে খুব বেশি তীর্থযাত্রীকে দর্শনের অনুমতি দেওয়া হবে না। রমেশ কুমার জানাচ্ছেন, দু’হাজার দর্শনার্থীর মধ্যে ১,৯০০ জনই হবেন স্থানীয়। আপাতত বাইরের রাজ্যের ১০০ জনকে অনুমতি দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছে। পরের মাসে সেই সংখ্যা আরও খানিকটা বাড়ানো হতে পারে। তবে এবার ৫০০ জনের বেশি ভিনরাজ্যের তীর্থযাত্রীকে প্রবেশ করতে না দেওয়ার পথেই হাঁটবে বোর্ড। পাশাপাশি বহিরাগতদের জন্য বিশেষ গাইডলাইনও জারি করা হয়েছে।

১. তীর্থযাত্রীকে করোনা নেগেটিভ হওয়ার প্রমাণপত্র সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। তা ৪৮ ঘণ্টার বেশি পুরনো হলে চলবে না।
২. প্রত্যেকের মোবাইলে আরোগ্য সেতু অ্যাপ থাকা বাধ্যতামূলক।
৩. ১০ বছরের কম বয়সি বাচ্চা, অন্তঃসত্ত্বা, ৬০ বছরের বেশি বয়সি এবং কো-মর্বিডিটি রয়েছে, এমন মানুষদের এবারের মতো তীর্থ না যাওয়ারই পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
৪. স্থানীয় ও বহিরাগত প্রত্যেককেই মুখে মাস্ক পরে আসতে হবে।

সংক্রমণ ঠেকাতে সবরকম ব্যবস্থা নিয়েছে কর্তৃপক্ষও। প্রতিটি স্থানে রাখা হয়েছে স্যানিটাইজার। প্রবেশ পথে থার্মাল গান দিয়ে চলছে চেকিং। এছাড়াও অন্যান্য প্রোটোকলও মেন চলা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: করোনা আবহে অভিনব সমাবর্তন, পড়ুয়াদের ডিজিটাল অবতারকেই সংবর্ধনা আইআইটি বোম্বের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement