২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

আসা-যাওয়ায় প্রেম জমে ক্ষীর! ১৩ বছরের কিশোরীকে বিয়ে করল ৬৫’র রিকশাচালক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 14, 2020 5:50 pm|    Updated: May 14, 2020 5:50 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: মেয়েটি এখনও কৈশোরে পা দেয়নি। তার আগেই তাকে প্রলোভনে ফেলে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করার অভিযোগ উঠল ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। পেশায় রিকশাচালক ও ৬ সন্তানের জনক ওই বুড়ো ভামের নাম নাম শামছুল হক শামছু(৬৫)। আর নাবালিকার নাম মরিয়ম আক্তার। সে পড়ে অষ্টম শ্রেণিতে। গত ১০ মে তাদের বিয়ে হয়। অসম বয়সের এই বিয়ের খবর প্রকাশ হতেই স্থানীয় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। অপ্রাপ্তবয়স্ক নাবালিকা বিয়ে করার জেরে ওই বৃদ্ধের বিরুদ্ধে কাজী বা আইনগত কোন ব্যবস্থা গ্রহণের খবর এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। ঘটনাটি কুমিল্লা জেলার লালমাই উপজেলার পেরুলের।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শামছুল হক শামছু লালমাই উপজেলার পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের পেরুল গ্রামের দীঘির পাড় এলাকার বাসিন্দা। আর ওই ছাত্রীর বাড়ি একই উপজেলার পশ্চিম পেরুল গ্রামে। শামছুল হকের ছোট মেয়েও তার সঙ্গে পড়ে। গত ১০ মে শামছুল হক শামছু ওই নাবালিকাকে ৫ লক্ষ টাকা দেনমোহর ও ১ লক্ষ টাকা উসুল দিয়ে বিয়ে করেছে। নাবালিকার বাবা ঢাকায় চাকরির সুবাদে তাদের পরিবার দেখাশোনা করার অছিলা বাড়িতে আসা-যাওয়া করত রিকশাচালক শামছু। আর পঞ্চম শ্রেণি থেকেই স্কুলে যাওয়া আসার সময় নাবালিকাটি শামছুল হকের রিকশাতেই যাতায়াত করত। এই সময়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

[আরও পড়ুন: সিংহ গর্জনের মাঝেই ভূমিষ্ঠ হল ৩ মানবশিশু, গভীর জঙ্গলে সন্তানের জন্ম দিলেন মহিলা ]

স্থানীয়রা বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হওয়ায় ১১ মে বর ও কনেকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে লোক মারফত নিয়ে আসেন ইউপি চেয়ারম্যান। শামছুল হককে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে বলে ৫ লক্ষ টাকা দেনমোহর ও ১ লক্ষ টাকা উসুল দিয়ে ওকে আমি বিয়ে করেছি। এই সময় শামছুল হক বিয়ের কাবিননামা ও কনের জন্মসনদও দেখিয়েছে।’

শামসুল হকের দুই মেয়ে ও তিন ছেলের মধ্যে এক ছেলে ও এক মেয়ের বিয়ে হয়েছে। আর কনে চার ভাইবোনের মাঝে দ্বিতীয়। তার বড় বোনের এখনও বিয়ে হয়নি। ছোট দুই ভাইও রয়েছে। এপ্রসঙ্গে মেয়ের কাকা মোবারক হোসেন মফু বলেন, ‘এ ঘটনায় আমরা সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হয়েছি। অবুঝ মেয়েটাকে ফুসলিয়ে সে এ কাজটা করেছে। মেয়ের বাবা বলেন, ‘শামসু আমার বাড়িতে কাজ করত। আমি ঢাকায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করি। তাই আমার পরিবারের বিভিন্ন কাজ সে করে দিত। ওকে আমি খুব বিশ্বাস করতাম। কিন্তু, ও আমার মেয়েকে ভুল বুঝিয়ে বিয়ে করেছে। ও একজন রিকশাচালক। ঘরে স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। এই রকম বয়স্ক একটা লোকের সঙ্গে আমার মেয়ে কীভাবে সংসার করবে?

[আরও পড়ুন: এটিএম মেশিনের ভিতর ঢুকে পড়ল বিশালায়তন সাপ, ভিডিও দেখলে শিউরে উঠবেন!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement