২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বন্ধুবান্ধব হোক বা অফিস। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মেসেজেই সাঙ্গ হয় গুরত্বপূর্ণ আলোচনা। কখনও আবার মেসেজ টাইপের ঝক্কিও পোহাতে চান না অনেকেই, তাই ইমোজি পাঠিয়েই কাজ সারেন। কিন্তু জানেন কী খাটনি এড়াতে ইমোজি পাঠানোতেই যেতে পারে চাকরি? শুনে অসম্ভব মনে হলেও, ঠিক এমনটাই হয়েছে চিনের এক মহিলার সঙ্গে। বসকে ইমোজিতে ‘ok’ পাঠিয়ে চাকরি হারিয়েছেন ওই মহিলা।

[আরও পড়ুন: ‘মহিলাদের স্তন কেটে বিক্রি করতাম’, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি অপরাধীর]

জানা গিয়েছে, চিনের ছাঙসা প্রদেশের একটি পানশালায় কাজ করতেন ওই মহিলা। সকলের মতোই অফিসের ‘উই চ্যাট’ গ্রুপে ছিলেন তিনিও। জানা গিয়েছে, গত সপ্তাহে সেখানেই তাঁকে তাঁর বস একটি মিটিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য পাঠাতে বলেন। আর তার উত্তরে ‘ok’ ইমোজি পাঠান ওই মহিলা। ব্যস, এতেই রেগে আগুন বস। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই মহিলাকে ওই গ্রুপেই নির্দেশ দেওয়া হয় যাতে এইচ আর ডিপার্টমেন্টে গিয়ে তিনি তাঁর পাওনা গণ্ডা বুঝে নেন এবং পদত্যাগ পত্র জমা দেন। ওই মহিলাকে বরখাস্ত করার পরেই বস গ্রুপে লেখেন, ইমোজি দিয়ে কখনও অফিস গ্রুপে উত্তর দেওয়া যায় না। চাকরি হারানো ওই মহিলাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, কীভাবে অফিসকে উত্তর দিতে হয় সেটাও কি জানেন না? একই ভুল যেন আর কেউ না করেন সেই কারণে গ্রুপেই তিনি জানিয়ে দেন, অফিসের কোনও মেসেজের পরে অন্তত ‘roger’ অর্থাৎ ‘আচ্ছা’ লিখতেই হবে।

[আরও পড়ুনরোগীর পেটের মধ্যে এসব কী! অস্ত্রোপচারের পর চক্ষু চড়কগাছ ডাক্তারদের]

আগে অনেক জায়গায় কাজ করেছেন ওই মহিলা। কিন্তু এমন অভিজ্ঞতার সম্মুখীন কখনওই হতে হয়নি, এমনটাই জানিয়েছেন ওই মহিলা। তবুও এই ঘটনায় নিজেকে শান্ত রেখেছেন তিনি। তাঁর সমস্ত বন্ধু এবং সহকর্মীরা তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন। ইতিমধ্যেই ওই কথোপকথন একটি মাইক্রোব্লগিং সাইটে ভাইরাল হয়েছে। বহু মানুষ সেখানে ওই মহিলার বসকে কটাক্ষ করেছেন। কেউ কেউ বলেছেন এমন তো হতেই পারে। বস বলে কথা! পছন্দ না হলে যখন  যাকে খুশি  তিনি অফিস থেকে বের করে দিতে পারেন! তবে যে যাই বলুন, চিনের এই ঘটনার পর অফিসের গ্রুপে কিছু লেখার আগে দু’বার ভাবুন। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং