৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  অভিযুক্তর শর্ত! আর তা মেনে নিয়েই অভিযুক্তকে ধরতে ময়দানে নেমে পড়ল টরিঙ্গটন পুলিশ। হ্যাঁ, প্রকাশ্যে এসেছে এমনই নজিরবিহীন এক ঘটনা। যেখানে ফেসবুকে এক অভিযুক্তের ছবি প্রকাশ করেছেন এক পুলিশ কর্মী। কারণ, প্রয়োজন প্রচুর লাইক। তবেই দেখা মিলতে পারে অভিযুক্তের। তার শর্ত আর পুলিশের ভূমিকা দেখে চক্ষু চড়কগাছ সকলের।

[আরও পড়ুন: মোদি ফিরতেই ত্রস্ত দাউদ, পাক গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে বৈঠক ডনের]

পুলিশসূত্রে জানা গিয়েছে, ওই অভিযুক্তের নাম জোসে সিমস। টরিঙ্গটন পুলিশের তরফে ওই অপরাধীর দুটি ছবি শেয়ার করা হয়। ২২ মে জোসের একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেন এক পুলিশ কর্তা। অভিযুক্তের সন্ধান চেয়ে পোস্ট করা ওই ছবির ক্যাপশনে পুলিশকর্তা জানান, “জোসে সিমস নামের এই ব্যক্তি আমাকে বলেছে, সে আমার কাছে ধরা দেবে, যদি তার এই ছবিটি ফেসবুকে ১৫হাজার লাইক পায়! যদিও আমি তাকে ১০ হাজার লাইকের কথা বলেছিলাম, কিন্তু সে চেয়েছিল আরও একটু বেশি, ২০ হাজার। একটু কঠিন ঠিকই! তবে সম্ভব। তাই সবাই দয়া করে ছবিটি লাইক করুন, শেয়ার করুন, টুইট, ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাট সব কিছু করে পোস্টটার লাইক বাড়ান।”

[আরও পড়ুন: বিপুল জয়ের জন্য নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানালেন ইমরান খান]

ছবিটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার দুই দিনের মধ্যে ২৬ হাজারেরও বেশি লাইক পড়ে ওই পোস্টে। যদিও সেই অপরাধীর খোঁজ করতে গিয়ে কার্যত হিমশিম অবস্থা তদন্তকারীদের। কিন্তু অভিযুক্তের খোঁজে করা এই পোস্টকে কেন্দ্র করে দানা বেঁধেছে বিতর্ক। প্রশ্ন উঠেছে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে। একজন অপরাধীর শর্ত মেনে পুলিশ কর্মী কেন এধরনের পোস্ট করলেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। কেউ কেউ বলছেন, “আমরা একজন অপরাধীকে আরও জনপ্রিয় হতে সাহায্য করলাম। আর পুলিশ আমাদের সেটা করতে বাধ্য করল।” তবে এই ঘটনা নজিরবিহীন তা বলেছেন সকলেই।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং