BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

১১০০ কিমি পথ পেরিয়ে নেপাল থেকে বাংলায়! ‘পরিযায়ী’ ঘড়িয়ালের কাণ্ডে হতবাক পশুপ্রেমীরা

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 27, 2020 10:21 am|    Updated: May 27, 2020 10:21 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের পায়ে হেঁটে গন্তব্যস্থলে পৌঁছতে গিয়ে দুর্দশার খবর মাস দুয়েক থেকেই খবরের শিরোনামে। কিন্তু এই লকডাউন পরিস্থিতিতে কোনওরকম সাহায্য ছাড়াই সূদুর নেপাল থেকে বাংলায় পৌঁছল এক ঘড়িয়াল!  দীর্ঘ ৬১ দিনের যাত্রাপথ। পেরিয়েছে ১১০০ কিলোমিটার। অবাক হচ্ছেন তো যে সূদূর নেপাল থেকে বাংলায় কী করে এল? বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির এই ঘড়িয়ালের কাণ্ড একপ্রকার সাড়া ফেলে দিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

সম্প্রতি ওয়াইল্ডলাইফ ট্রাস্ট ইন্ডিয়ার তরফে টুইট করে নেপালের এই বিলুপ্তপ্রায় ঘড়িয়ালের বাংলায় পাড়ি দেওয়ার খবর প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। তারপর থেকেই ‘পরিযায়ী’ এই ঘড়িয়ালকে নিয়ে সরগরম নেটদুনিয়া। নেপাল থেকে আগত এই ঘড়িয়ালটি বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির। রিপোর্ট বলছে, বর্তমানে এমন ঘড়িয়ালের সংখ্যা মাত্র ৬৫০টি।

[আরও পড়ুন: করোনা তাড়াতে যজ্ঞ! পুরসভার উপপ্রধানের উপস্থিতি ঘিরে বিতর্ক]

তা কী করে নেপাল থেকে ভারতে পৌঁছল এই ‘পরিযায়ী’ ঘড়িয়াল? ওয়াইল্ডলাইফ ট্রাস্ট ইন্ডিয়ার তরফে জানা গিয়েছে, গণ্ডক (নারায়ণী) নদী যে রাপতি নদীতে মিশেছে, সেখানে এই প্রজাতির ঘড়িয়াল প্রায় অনেকগুলি ছাড়া হয়েছিল ১ মাস আগে। আর সেগুলির মধ্যেই কোনও একটি উদ্ধার হয় বাংলা থেকে। যা প্রায় ১১০০ কিমি পথ পেরিয়ে চলে এসেছে।

উল্লেখ্য, হুগলির রানীনগর ঘাটে মত্সজীবীদের জালে ধরা পড়েছে এই ঘড়িয়ালটি। ঘড়িয়ালটির চামড়ায় এমন মার্কিং রয়েছে যা নেপালের এই প্রজাতির প্রাণীর মধ্যে দেখা যায়। কিন্তু কীভাবে সেটি এতটা পথ পেরিয়ে বাংলায় এসে পৌঁছেছে তা ঠাহর করা দায়! তবে ওয়াইল্ড ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়ার তরফে আন্দাজ করা হয়েছে, গণ্ডক থেকে এই বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির ঘড়িয়াল প্রথমটায় এসে পড়ে গঙ্গায়। তারপর ফারাক্কা হয়ে হুগলিতে।

[আরও পড়ুন: রাস্তার মাঝে বোনকে জড়িয়ে ধরল ভাই, কুকুরছানার কাণ্ড দেখে উচ্ছ্বসিত নেটিজেনরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement