BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

লুডো খেলায় চিটিং করেছে বাবা, অভিযোগ নিয়ে সোজা আদালতে হাজির মেয়ে

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 27, 2020 2:37 pm|    Updated: September 27, 2020 2:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাকে হারাতে দীর্ঘ কয়েক মাস ঘরবন্দী দেশবাসী। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে বেছে নিয়েছেন নানা ইনডোর গেম। এর মধ্যেই নিজের হারানো জনপ্রিয়তা আবার  ফিরে পেয়েছে লুডো (Ludo)। কিন্তু সেই খেলাকে কেন্দ্র করেই বাবা-মেয়ের সম্পর্কে যে চিরদিনের মতো চির ধরবে, তা কে জানত! লুডো খেলতে বসে বাবা ধোঁকা (Cheat) দিয়েছে, এই অভিযোগ নিয়ে সোজা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) বছর চব্বিশের এক তরুণী।

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, কিছুদিন আগে বাড়িতে বাবা ও ভাইবোনদের সঙ্গে বসে লুডো খেলছিলেন ওই তরুণী। সেই সময় তাঁর বাবা মেয়েটির একটি পাকা ঘুঁটি কেটে দেন। বাবা যে তাঁর ঘুঁটি কাটতে পারে, সেটা ওই তরুণী বিশ্বাসই করতে পারেননি। ‘বিশ্বাস ভঙ্গ’ হওয়ায় ভোপাল ফ্যামিলি কোর্টের দ্বারস্থ হয় মেয়েটি।  আদালতের এক মহিলা আধিকারিক সরিতা জানিয়েছেন, “মেয়েটির কান্ড দেখে আমি অবাক। তরুণী জানিয়েছে, সে তার বাবার প্রতি সমস্ত শ্রদ্ধা হারিয়েছে। যে বাবা তাঁকে পৃথিবীর সমস্ত সুখ দেওয়ার কথা দিয়েছিলেন, তিনি মেয়েকে হারিয়ে দেওয়ার জন্য এমন কাজ করতে পারেন, তা মেয়েটি ভাবতেই পারছে না।”

তরুণী তাঁর বাবার সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করার কথাও জানিয়েছে। মেয়েটির কথায়, “বাবা সবসময় বলত, আমাকে সুখী করতে সব করতে পারে। ওই দিন আমার আনন্দের জন্য বাবা উচিৎ ছিল গেমটা হেরে যাওয়া। কিন্তু বাবা তা করেনি। আমার সমস্ত বিশ্বাব ভেঙে দিয়েছে বাবা।” তরুণীর কাণ্ড দেখে অবাক আদালতের সকলে। ঘটনা প্রসঙ্গে আদালতের কাউন্সেলর সরিতা জানিয়েছেন, মেয়েটির সঙ্গে চারদফার কাউন্সিলিং সেশন করা হবে। তবে এই প্রথম নয়। এর আগে এই লুডো খেলায় হেরে গিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকা সম্পর্ক ভাঙা, স্বামী স্ত্রীকে মারধর এমনকী খুনের মতো ঘটনাও ঘটেছে। তবে এভাবে সোজা আদালতে যাওয়ার ঘটনা একেবারে নতুন বলেই দাবি ওয়াকিবহাল মহলের।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement