১৭  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

একাকীত্বে ভুগছেন? জানেন, মাত্র ৬০০ টাকাতেই মানুষ ‘ভাড়া’ দেয় এই সংস্থা?

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 8, 2019 6:14 pm|    Updated: September 8, 2019 6:14 pm

If you are alone, you can hire a man for Rs. 600 in Japan

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সত্যজিৎ রায়ের সৃষ্ট অনুকূলের কথা মনে আছে? বাড়ির সমস্ত কাজ করা থেকে মালিকের দেখভাল, সবই করত এই রোবট। নিঃসঙ্গ জীবনে মালিক খুঁজে পেয়েছিলেন সবসময়ের এক সঙ্গীকে। বাস্তবেও যদি এমনটা হত? যদি এমন একজনকে পাওয়া যেত, যে বাড়ির নানা কাজকর্মের পাশাপাশি বাড়ির সদস্যই হয়ে উঠবে। যাঁরা কাজের সূত্রে একা থাকেন অথবা সঙ্গীর অভাবে অনিচ্ছা সত্ত্বেও একা থাকতে হয়, তাঁদের কাছে এমনটা হাতে চাঁদ পাওয়ার মতোই হবে। যুগের অগ্রগতির সঙ্গে এখন এমন মানুষও ভাড়া পাওয়া যায়। হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। সামান্য অর্থের বিনিময়েই এখন নিঃসঙ্গতা কাটানো সম্ভব।

[আরও পড়ুন: আস্ত গ্রামের মালিক হতে চান? বিশ্বের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে সুবর্ণ সুযোগ]

বিষয়টা তাহলে একটু খুলে বলা যাক। জাপানে শুরু হয়েছে এই পরিষেবা। মাত্র ৬০০ টাকায় ভাড়া পাওয়া যায় মানুষ! তাকানোবু নিশিমোতোর মস্তিষ্কপ্রসূত এই আইডিয়াই এখন পরিষেবায় পরিণত হয়েছে। বছর পঞ্চাশের তাকানোবু ‘ওশান রেন্টাল’ নামে একটা অনলাইন পরিষেবা সংস্থা খুলেছেন। জাপানে ‘ওশান’ শব্দের অর্থ মধ্যবয়স্ক। তাই এই নাম বেছে নেওয়া হয়েছে। নিঃসঙ্গ মানুষজনের পাশে দাঁড়ানোই এই সংস্থার কাজ। একাকী মানুষদের ঘরসংসারের কাজ করা থেকে তাঁদের সঙ্গে সময় কাটানো, সবই করে সংস্থাটি। কীভাবে?

জাপানের কোনও বাসিন্দা ‘ওশান রেন্টাল’ পরিষেবা পেতে চাইলে এই সংস্থায় প্রথমে যোগাযোগ করে। তারপরই সংস্থা থেকে এক মধ্যবয়স্ক ব্যক্তি পৌঁছে যান গ্রাহকের বাড়ি। তিনি গ্রাহকের কথা মন দিয়ে শোনেন। নানা পরামর্শ দিয়ে তাঁর সমস্যার সমাধানের চেষ্টাও করেন। সেই সঙ্গে ঘরের যাবতীয় কাজও করে দেন। ঠিক যেন কাছের মানুষ। এর জন্য কত খরচ করতে হবে? সংস্থা জানাচ্ছে, ভারতীয় মুদ্রায় ঘণ্টায় ৬০০ টাকা দিতে হবে ওই ব্যক্তিকে।

[আরও পড়ুন: বৃদ্ধা মালকিনকে ঠুকরে মারল পোষা মোরগ]

২০১২ সালে টোকিয়োতে নিজের বাড়ি থেকেই এই অনলাইল পরিষেবা সংস্থাটি শুরু করেছিলেন তাকানোবু। তিনি বলছেন, মধ্যবয়স্ক মানুষই সংস্থার সঙ্গে বেশি যোগাযোগ করে থাকেন। একাকীত্ব ঘোচাতে সংস্থার ব্যক্তির সঙ্গে পার্টিও করে থাকেন। এমনকী প্রেম সংক্রান্ত এবং কর্মক্ষেত্রের সমস্যার সমাধানেও সাহায্য করেন। কিন্তু এক্ষেত্রে বিশ্বাসযোগ্যতার প্রশ্নও উঠে যায়। তবে তাকানোবু আশ্বাস দিচ্ছেন, তাঁর পাঠানো ব্যক্তিদের তিনি নিজে বাছাই করেন। গ্রাহকদের ভাল পরিষেবা দেওয়াই তাঁর কাজ। এখন দেখার এ পরিষেবা এদেশেও চালু হয় কি না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে