BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দেবতা দর্শনে সটান মন্দিরের ভিতর! পুরোহিতের নির্দেশ পেতেই ডেরায় ফিরে গেল ‘সংস্কারী’ কুমির

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 23, 2020 11:20 am|    Updated: October 23, 2020 3:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কুমির বলে কি ভগবানের প্রতি ভক্তি থাকতে পারে না? একশোবার থাকতে পারে! যেখানে তার বসবাস ‘ঈশ্বরের নিজের দেশ’ কেরলে। তার উপর আস্তানাটা একদম মন্দিরের ভিতরে। দেবতা দর্শনে গিয়ে অন্তত তেমনটারই প্রমাণ দিল কেরলের ‘বাবিয়া’!

নিশ্চয়ই ভাবছেন ব্যাপারটা কী? জানা গিয়েছে, এদিন আচমকা মন্দিরের ভিতরের পুকুর থেকে সটান কেরলের (Kerala) শ্রীঅনন্তপদ্মনাভ স্বামী মন্দিরের উঠোনে উঠে আসে কুমির ‘বাবিয়া’। মন্দিরের ভিতরে প্রায় উঁকি দিয়ে দেখার চেষ্টা করল ঠাকুরের মুখ! বেশ কিছুক্ষণ সেখানে থাকার পর মন্দিরের প্রধান পুরোহিত চন্দ্রপ্রকাশ নম্বিসান যখন কুমিরটিকে মন্দিরের পুকুরের জলে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দিলেন তখন এতটুকুও অবাধ‌্য হয়নি সে। চুপচাপ ফিরে যায় নিজের ডেরায়।

[আরও পড়ুন: দৈনিক করোনা সংক্রমণে রাজ্যে ফের রেকর্ড, মহাষষ্ঠীতেও আক্রান্তের নিরিখে শীর্ষে কলকাতা]

কেরলের কাসারাগোড় জেলার এই মন্দিরের সকলে নিরামিষভোজী কুমিরটিকে আদর করে ‘বাবিয়া’ বলেই ডাকেন। নিরামিষাশি কুমির বড় একটা শোনা যায় না। কিন্তু ‘বাবিয়া’ এতটুকুও হিংস্র নয়। আমিষ খাবার ছুঁয়ে দেখাও পাপ তার কাছে। কাউকে কোনওদিন আঘাতও করেনি। জানা গিয়েছে, গত ৭০ বছরের বেশি সময় ধরে মন্দিরের পুকুরে বাস বাবিয়ার। কিন্তু এই প্রথম জল ছেড়ে মন্দিরে উঠে এল সে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ২০ অক্টোবর। মন্দির কর্তৃপক্ষের তরফে চন্দ্রশেখরন জানান, কুমিরটিকে মন্দিরের ভিতরে দেখে চমকে গিয়েছিলেন পুরোহিতরা। তারপর প্রধান পুরোহিত তাকে পুকুরে ফিরে যাওয়ার কথা বলতেই ‘বাবিয়া’ তা বুঝতে পারে। সঙ্গে সঙ্গে সে ‘ইউ টার্ন’ নিয়ে পুকুরের দিকে পা বাড়ায়।

[আরও পড়ুন: সিদ্ধান্তে সামান্য বদল, শর্তসাপেক্ষে টাকির ইছামতী নদীতে করা যাবে প্রতিমা নিরঞ্জন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement