Advertisement
Advertisement
Gujarat IAS

দশমের পরীক্ষায় অঙ্কে ৩৬, ইংরাজিতে ৩৫ পেয়েও পরবর্তীতে IAS অফিসার! মার্কশিট দেখে তাজ্জব নেটদুনিয়া

প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসাও পেয়েছেন ওই আইএএস অফিসার।

Marksheet of Gujarat IAS goes viral with 35 in English and 36 in Math | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:June 14, 2022 4:41 pm
  • Updated:June 14, 2022 4:41 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দশম শ্রেণির পরীক্ষায় কোনওমতে পাশ করেছিলেন। অঙ্কে একশোর মধ্যে পেয়েছিলেন মাত্র ছত্রিশ! একই অবস্থা ইংরাজিতেও। টেনে-টুনে পঁয়ত্রিশ পেয়েছিলেন। বাকি বিষয়ের কোনটিতেই ভাল নম্বর পাননি। কিন্তু সম্প্রতি তাঁর মার্কশিট প্রকাশ্যে আসতেই নেটদুনিয়ায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে। তাঁর এই মার্কশিট দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন অনেকেই। কে তিনি? তিনি ভারুচের ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর। 

কিন্তু ব্যাপারটা কী? ওই মার্কশিট এক আইএএস অফিসারের (IAS Officer)। তাঁর নাম তুষার সুমেরা। বর্তমানে তিনি গুজরাটের ভারুচ জেলার ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর হিসাবে নিযুক্ত রয়েছেন। কিন্তু এই কথা জেনে নেটিজেনরা হতবাক! এত কম নম্বর পেয়ে যে পাশ করেছে, তার পক্ষে কি আইএএস হওয়া সম্ভব? কিন্তু তাঁদের যাবতীয় সংশয়ের নিরসন করেছেন তুষার নিজেই। তিনি বলেছেন, মন দিয়ে পড়াশোনা করলে সব পরীক্ষায় পাশ করা সম্ভব।

Advertisement

[আরও পড়ুন: TMC’র ভয়ে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বদল! ভোটপ্রচারে একাধিক ইস্যুতে বিজেপিকে খোঁচা অভিষেকের]

কীভাবে প্রকাশ্যে এল ২০১২ ব্যাচের ওই আইএএস অফিসারের দশম শ্রেণির মার্কশিট (Gujarat IAS Marksheet)? জানা গিয়েছে, সাগপ্রিয়া নামে তুষারের এক পরিচিত এই ছবি প্রকাশ করেছেন। সাগপ্রিয়া মোটিভেশন স্পিকার হিসাবে কাজ করেন। তুষার বলেছেন, “সাগপ্রিয়া আমাকে অনেক দিন ধরেই চেনে। প্রচুর মানুষকে আমার কথা বলে অনুপ্রাণিত করে। সেই প্রসঙ্গেই আমার মার্কশিটের ছবি চায়।” তারপরে সেই ছবিটি শেয়ার করেছেন অবনীশ শরণ নামে আরেক আইএএস। সেই থেকেই ছড়িয়ে পড়ে মার্কশিটের ছবি।

Advertisement

দশম শ্রেণির পরীক্ষায় ভাল ফল না হলেও দমে যাননি তিনি। মন দিয়ে পড়াশোনা চালিয়ে গিয়েছেন। নিজে নিজেই ইংরাজি ও অঙ্ক শিখেছেন। শুধু শেখাই নয়, ইউপিএসসির (UPSC) মতো কঠিন পরীক্ষায় পাশও করেছেন। তুষারের এমন কাহিনি শুনে আপ্লুত নেটিজেনরা। তাঁর জীবনের কাহিনি সকলকে জানানোর জন্য অনেকেই ধন্যবাদ জানিয়েছেন তুষারকে। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই ভাল কাজের পুরস্কার হিসাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসাও পেয়েছে ভারুচ জেলা প্রশাসন। কঠোর পরিশ্রম করলে সাফল্য আসবেই, এই কথাই যেন ফের মনে করিয়ে দিল তুষারের জীবন কাহিনি।

[আরও পড়ুন: মাথা থেঁতলে মাকে ‘খুন’, রক্তাক্ত দেহের পাশেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে রইল ছেলে!]

 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ