BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

নিরুদ্দেশ গৃহবধূকে খুঁজতে খরচ প্রায় ১ কোটি, খোঁজ মিলল প্রেমিকের সঙ্গে

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: July 29, 2022 12:21 pm|    Updated: July 29, 2022 12:21 pm

Married woman fled with lover, search operation cost 1 crore ।Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্ত্রী নিরুদ্দেশে। বিভ্রান্ত হয়ে পুলিশের সাহায্য চাইলেন স্বামী। হেলিকপ্টারে খোঁজ চলল গোটা দিন ধরে। খরচও হল প্রায় ১ কোটি। অবশেষে স্ত্রী-র খোঁজ মিলল তাঁর প্রেমিকের সঙ্গে। অন্ধপ্রেদেশের ঘটনায় রীতিমতো বিরক্ত হয়েছে প্রশাসন।

এন সাই প্রিয়া ও তাঁর স্বামী শ্রীনিবাস রাও বিশাখাপত্তনমের (Visakhapatnam) সঞ্জীভানগর কলোনির বাসিন্দা। সোমবার সকালে বছর ২১-এর এই মহিলা তাঁর স্বামীর সঙ্গে নিজেদের দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকী পালনের জন্য প্রথমে স্থানীয় এক মন্দিরে পুজো দিতে যান। তারপর দম্পতি বিশাখাপত্তনমের রামকৃষ্ণ বিচে (Ramakrishna Beach) সময় কাটাতে পৌঁছান। সেখানেই ঘটে এই অদ্ভুত ঘটনা। একটি ফোন আসায় কিছুক্ষণের জন্য স্ত্রীকে একা রেখে উঠে যেতে হয় শ্রীনিবাসকে। ফিরে এসে আর স্ত্রীকে খুঁজে পাননি তিনি। ঘড়িতে তখন সন্ধে ৭ টা। সমুদ্র সৈকতে স্ত্রীকে দেখতে না পেয়ে রীতিমতো ভয় পেয়ে যান স্বামী শ্রীনিবাস। তিনি মনে করেন কোনওভাবে সমুদ্রের ঢেউয়ে তাঁর স্ত্রী ভেসে গিয়ে থাকবেন। তখনই পুলিশের কাছে ছুটে যান শ্রীনিবাস।

[আরও পড়ুন: ‘বলির পাঁঠা পার্থ’, প্রতিক্রিয়া সুকান্তর, ‘অপসারণ করেই দায় এড়ানো যায় না’, বলছে সিপিএম]

পরদিন সকালেই খোঁজ শুরু করে পুলিশ। এলাকার সমস্ত কোস্টগার্ডদের নিয়ে শুরু হয় সার্চ অপারেশন। প্রথমে খোঁজ শুরু হয় স্পিড বোটের মাধ্যমে। কিন্তু বেশ খানিকক্ষণ খোঁজার পরেও কিছুই পাওয়া যাইনি। এরপর পুলিশ দারস্থ হয় জলসেনার। কাজে লাগানো হয় নেভি হেলিকপ্টারগুলি। সারাদিন কেটে গেলেও রামকৃষ্ণ বিচ অঞ্চল থেকে কোনওভাবেই এন সাই প্রিয়া-র খোঁজ পাওয়া যায়নি। এত কিছুর জন্য খরচও হয় প্রায় ১ কোটি টাকা। একই সঙ্গে চাঞ্চল্য ছড়ায় সেই এলাকাতেও। কোনও উপায় না পেয়ে খবর পাঠানো হয় বিভিন্ন থানাগুলিতে।

[আরও পড়ুন: ‘মুসলিম বলেই টার্গেট করা হচ্ছে’, কর্ণাটকের বিজেপি নেতার খুনে অভিযুক্তর বাবার মন্তব্য]

এরপরই বুধবার নেল্লোর জেলার(Nellore) কাছের একটি জায়গায় খোঁজ পাওয়া যায় মহিলার। জানা যায় সেখানে তিনি তাঁর প্রেমিকের সঙ্গে বহাল তবিয়তে আছেন। নিজেই ফোন করে সেকথা তাঁর বাড়িতে জানান মহিলা। অর্থাৎ তাঁর কিছুই হয়নি, নিজে থেকেই প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গিয়ে পুলিশকে বিভ্রান্ত করেছেন এই ক’ দিন। স্বামী ফোন করতে উঠে যাওয়ার সুযোগে তিনি তাঁর প্রেমিক রবির সঙ্গে পালান। সূত্রের খবর, অনেকদিন ধরে প্রণয় ঘটিত সম্পর্কে জড়িত ছিলেন রবি ও প্রিয়া। তবে এমন ঘটনায় রীতিমতো বিরক্ত হয়েছে প্রশাসন ও নেভি কর্তারা। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে