BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনের গেরোয় জীবনের প্রথম জন্মদিন, বাড়িতে কেক পৌঁছল মানবিক পুলিশ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 18, 2020 8:17 pm|    Updated: April 18, 2020 8:17 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের জেরে বিশ্বব্যাপী মৃত্যুমিছিল চলছে। এই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে অন্য অনেক দেশের মতো ভারতেও লকডাউন (lock down) চলছে। এর মাঝে পড়ে জীবনের প্রথম জন্মদিনের অনুষ্ঠান বাতিল হয়ে গিয়েছিল একরত্তি মাইরার। দুঃখ পেয়েছিলেন তার বাবা ও মা-সহ অন্য আত্মীয়রাও। মন খারাপ করে বসেছিলেন বাড়িতে। কিন্তু, কিছুক্ষণ বাদেই বদলে গেল পরিস্থিতি। আচমকা বেজে উঠল কলিংবেল। আর সেই শুনে দরজা খুলতেই ছোট্ট মাইরার বাবা-মায়ের হাতে একটি কেক তুলে দিয়ে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানালেন কয়েকজন পুলিশকর্মী। গাইলেন ‘হ্যাপি বার্থডে’ গান। অভুতপূর্ব এই ঘটনাটি ঘটেছে পাঞ্জাবের মনসা জেলায়।

শনিবার পাঞ্জাব পুলিশের তরফে সোশ্যাল মিডিয়াতে এই ঘটনার ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, একটি বাড়ির সামনে বাইক নিয়ে গিয়ে দাঁড়ালেন মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস পড়া কয়েকজন পুলিশকর্মী। তারপর বাইক থেকে নেমে একহাতে কেকের বাক্স ধরে অন্যহাতে গেটের বাইরে থাকা কলিংবেল বাজান এক পুলিশকর্মী। আর তারপর ‘হ্যাপি বার্থডে’ গানটি গাইতে থাকেন। সেই আওয়াজ শুনে ছোট্ট শিশুকন্যাকে কোলে নিয়ে বাইরে বেরিয়ে আসেন তার বাবা ও মা। আর তখন তাঁদের হাতে সঙ্গে আনা কেকের বাক্সটি তুলে দিয়ে ছোট্ট শিশুটিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান পুলিশকর্মীরা। ভিডিওটি পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, মাইরা প্রথম জন্মদিনে মনসা পুলিশের মিষ্টি ব্যবহার। বাড়ির দরজায় জন্মদিনের কেক পৌঁছে দিয়ে তাকে চমকে দিলেন পুলিশকর্মীরা।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে সময় কাটাতে পরিবারের সদস্যরা বাড়িতেই বানালেন সমুদ্রতট! ব্যাপারটা কী? ]

 

ভিডিওটি দেখার পর ওই পুলিশকর্মীদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে উঠেছেন নেটিজেনরা। একজন লিখেছেন, পুলিশের মানবিক আচরণ আমাদের মুগ্ধ করেছে। অন্য একজনের কথায়, খুবই সুন্দর ও মনভোলানো ভিডিও। পাঞ্জাব পুলিশকে স্যালুট জানাই।

[আরও পড়ুন: করোনাতঙ্কে ভীত মানুষ, পরমানন্দে শুয়ে নাক ডাকছে পশুরাজ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement