৯ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ২৪ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৯ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ২৪ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছবি তোলার নেশায় দেশ-বিদেশ ঘুরে বেড়ান অনেকেই। কিন্তু পছন্দের মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করা হয়ে ওঠে না। বাধা হয়ে দাঁড়ায় সময় আর পরিস্থিতি। শিকারের অপেক্ষায় থাকা ঈগলকে ক্যামেরাবন্দি করা আবার অনেক চিত্রগ্রাহকের স্বপ্ন৷ কিন্তু সেই স্বপ্ন পূরণ হয় ক’জনের?    

[আরও পড়ুনননদের সঙ্গেই বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন পাত্রী! জানেন কোথায় ঘটে এমন?]

দীর্ঘদিনের অপেক্ষা, বহু চেষ্টার পরেও এমন মুহূর্তে ফ্রেমে ধরা দেয় না ঈগল। কিন্তু সেই  মুহূর্তের ছবি তুলে এবার সকলকে তাক লাগিয়ে দিলেন কানাডার চিত্রগ্রাহক স্টিভ বায়রো। ধারালো হলুদ-কমলাটে ঠোঁট, একজোড়া চোখ। তীক্ষ্ণ তার নজর। শিকার ধরার লক্ষ্যে নিবিষ্ট সে। দু’পাশে বিশাল ডানা মেলে এখুনি যেন ডুব দেবে জলে। ছোঁ মেরে তুলে আনবে বহুক্ষণ ধরে তাক করে রাখা শিকার। এমনই অবস্থায় ঈগলকে লেন্সবন্দি করলেন স্টিভ। আর তাঁর তোলা ছবি এখন নেটদুনিয়া কাঁপাচ্ছে। সেটি এমনই এক ছবি যা আপনার নজর কাড়তে বাধ্য। কিন্তু এত নিখুঁত ভাবে কীভাবে ওই মুহূর্ত  লেন্সবন্দি করলেন ওই ফটোগ্রাফার, তা জানতে চাইছেন অনেকেই।  

[আরও পড়ুন: ১৫ হাজার লাইক মিললে ধরা দেবে, অভিযুক্তের শর্ত মেনে ফেসবুকে ছবি পোস্ট পুলিশের!]

জানা গিয়েছে, চলতি বছর মে মাসের শুরুর দিকে কানাডাতে এই ছবি তুলেছেন স্টিভ। প্রায় ১০ বছর ধরে ‘অ্যামেচার ফটোগ্রাফি’ করছেন এই কানাডিয়ান ফটোগ্রাফার। তাই কখন কীভাবে এমন মুহূর্ত লেন্সবন্দি করতে হবে তা ভালোই জানেন স্টিভ। তাঁর কথায়, “বছর খানেক আগেও একবার ঈগলের এমন মুহূর্ত ক্যামেরায় ধরতে চেয়েছিলাম। কিন্তু পারিনি। সে বার ফটো তোলার আগেই বুঝেছিলাম আমার পজিশন ঠিক নেই। যা চাইছি সেই ছবি তুলতে পারব না।” তবে দ্বিতীয়বার আর সুযোগ হাতছাড়া করেননি তিনি। স্টিভ জানিয়েছেন, “এবার জলের পাশেই ঠায় বসেছিলাম ক্যামেরা নিয়ে। তারপর ঈগলটা আসতেই জলের ধারে একটি পাথরে ভর দিয়ে প্রায় শুয়ে পড়ে ছবিটা তুলি।” আর সেই ছবিই এবার ঘুরছে সবার পাতায় পাতায়৷ দেদার প্রশংসা কুড়োচ্ছে স্টিভের এমন কীর্তি আর নিবিষ্ট সমর্পণ৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং