BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ছোটবেলার স্বপ্ন, সারাজীবনের জমানো পুঁজি দিয়ে নিজেরই মূর্তি বানালেন এই কাগজকুড়ানি

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 21, 2020 10:02 pm|    Updated: September 21, 2020 10:02 pm

An Images

‌সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ কথায় আছে, চেষ্টা করলে কোনও কিছুই অসম্ভব না। আর সেই প্রবাদবাক্যকে সঠিক প্রমাণ করলেন তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) সালেমের (Salem) আত্থানুরপাট্টি গ্রামের বাসিন্দা এক কাগজকুড়ানি। ছোট থেকে স্বপ্ন ছিল নিজের মূর্তি বানাবেন। আর সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে খরচ করে ফেললেন ১১ লক্ষ টাকা। যা তাঁর সারাজীবনের জমানো পুঁজি। শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি।

[আরও পড়ুন: আস্ত একটি পাখিকে গিলে খাচ্ছে মাকড়সা!‌ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই ভিডিও]

জানা গিয়েছে, আগে রাজমিস্ত্রীর (Mason) কাজ করতেন এ নালাথাম্বি নামে ওই কাগজকুড়ানি। কিন্তু সেই কাজ ভাল না লাগায় ছেড়ে দেন। এমনকী গ্রামের বাড়ি থেকেও বেরিয়ে যান। এরপর কাগজকুড়ানির কাজ শুরু করেন। পুরনো বোতল এবং পুনর্ব্যবহারযোগ্য (Recyclable) জিনিস জোগাড় করে তা বিক্রি করতেন তিনি। দিনে আয় হত ২০০ থেকে ৩০০ টাকা। সেখান থেকেই যাবতীয় খরচ চালিয়ে, বাকি টাকা সঞ্চয় করতেন। যদিও রাজমিস্ত্রীর কাজ করার সময় থেকেই টাকা জমাতেন তিনি। দীর্ঘদিন কাজ করার পর দেখেন, তাঁর কাছে ১১ লক্ষ টাকা জমেছে। কিন্তু পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক না থাকায়, ওই টাকায় নিজের পুরনো স্বপ্নপূরণের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন।

[আরও পড়ুন: OMG! আমজনতাকে নারকেলের অভাবের কথা জানাতে সোজা গাছে চড়লেন মন্ত্রী!]

এরপরই যেমন ভাবা তেমন কাজ। ভাজাপিদ–বেলুড় রোডের পাশে দশ লক্ষ টাকা ব্যয়ে জমি কেনেন। এরপর বাকি এক লক্ষ টাকা দিয়ে স্থানীয় এক স্থপতিকে দিয়ে নিজেরই একটি মূর্তি বানান সেখানে। এই প্রসঙ্গে নালাথাম্বির বক্তব্য, ‘‌‘‌ছোটবয়স থেকেই ইচ্ছে ছিল বড় হয়ে অনেক নাম করব। নিজের একটি মূর্তি হবে। এবার আমার সেই স্বপ্ন সত্যি হল।’‌’‌ আপাতত তাঁর ইচ্ছে বড়সড় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সেটির উন্মোচন করা। খবরটি প্রকাশ্যে আসতে অনেকেই অবাক হয়েছেন। তবে নালাথাম্বি কিন্তু সত্যিই নিজের স্বপ্নপূরণ করলেন। নিজের সঞ্চয় শেষ করে ফেললেও শেষপর্যন্ত খ্যাতি পেলেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement