BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‌OMG!‌ ঘুমের মধ্যে মহিলার মুখের ভিতর সটান ঢুকে পড়ল ৪ ফুট লম্বা সাপ, তারপর.‌.‌.‌

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 3, 2020 10:39 pm|    Updated: September 3, 2020 10:39 pm

‘Worst nightmare’: 4-feet snake pulled out from woman’s mouth in Russia

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ আপনি ঘুমোচ্ছে? হঠাৎ করে লক্ষ্য করলেন, শরীরটা খারাপ লাগছে? চিকিৎসকের কাছে গিয়ে জানতে পারলেন, শরীরের ভিতর ৪ ফুট লম্বা একটি সাপ রয়েছে!‌ শুনতে ভয়ের মনে হলেও এমনটাই ঘটেছে রাশিয়ার (Russia) এক ঘুমন্ত মহিলার সঙ্গে। গ্রামের বাড়িতে ঘুমিয়ে পড়ার পর কোনওক্রমে একটি সাপ তাঁর মুখের ভিতরে ঢুকে যায়। অনেক পরে শরীর খারাপ অনুভব করতেই হাসপাতালে ছোটেন ওই মহিলা। তারপরই সামনে আসে গোটা বিষয়টি। ওই মহিলার মুখ থেকে সাপ বের করার ভিডিওটি ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাইরাল হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘পিয়া তু…’, আশা ভোঁসলের গানে তুমুল নাচ ফুটপাতবাসী দুই বৃদ্ধার, দেখে মুগ্ধ স্বয়ং গায়িকা]

জানা গিয়েছে, ঘটনাটি রাশিয়ার দাগেস্তানের লেভাসি গ্রামের। ঘটনার সময় গ্রামের বাড়িতে নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তিনি। তখনই তাঁর মুখ দিয়ে একটি সাপ (Snake) ঢুকে যায়। যদি তিনি তা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি। একটি ইংরাজি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ঘুম থেকে ওঠার পর ওই মহিলা শরীর খারাপ অনুভব করেন। তখনই হাসপাতালে ছোটেন তিনি। তারপরই পরীক্ষা করলে দেখা যায়, মহিলার শরীরের ভিতর একটি সাপ র‌য়েছে। এরপর তাঁকে অচেতন করে সাপটি বের করা হয়।

[আরও পড়ুন: হিসেব মেলে না! সঠিক পারিশ্রমিক পেয়েও যুবকের সাথে কলহ পরিচারিকার, ভাইরাল মজার ভিডিও]

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, চিকিৎসক হাতে গ্লাভস পরে মহিলার মুখে টিউব প্রবেশ করিয়ে সাপটি বের করে আনছেন। একজন মহিলা নার্সকে দেখা যাচ্ছে, সেই সাপ হাতে নিয়ে হতবাক হয়ে তাকিয়ে রয়েছেন। মহিলার মুখ থেকে সাপ বের করার পর নার্সটি সাপটিকে বালতিতে রেখে দেন। রুমে থাকা প্রত্যেকেই মুখ থেকে সাপ বের করার ঘটনা চাক্ষুষ করে রীতিমত শিহরিত। নেটিজেনরাও বিস্মিত গোটা ঘটনায়। অনেকের মনেই প্রশ্ন, ‘‌‘‌কীভাবে এমন সম্ভব?‌’‌’‌ অনেকেই আবার চিকিৎসকদের প্রশংসাও করেছেন।

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে