BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পুজোয় অঙ্কের ভাষায় ছক ভাঙার গল্প বলবে বেহালা নূতন দল

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: October 3, 2018 2:58 pm|    Updated: October 3, 2018 2:58 pm

Puja 2018: Behala Nutan Dal's theme define break the shackle in a different way

পুজো প্রায় এসেই গেল৷ পাড়ায় পাড়ায় পুজোর বাদ্যি বেজে গিয়েছে৷ সেরা পুজোর লড়াইয়ে এ বলে আমায় দেখ তো ও বলে আমায়৷ এমনই কিছু বাছাই করা সেরা পুজোর প্রস্তুতির সুলুকসন্ধান নিয়ে হাজির sangbadpratidin.in৷ আজ পড়ুন বেহালা নূতন দলের পুজোর প্রস্তুতি৷

শুভময় মণ্ডল: শিশু এবং তার শৈশব এখন এক ভয়ঙ্কর বিপদের সম্মুখীন। প্রথাগত শিক্ষা এবং জীবনশৈলীর চিরাচরিত ধ্যানধারণার মাঝে আটকা পড়ে গিয়েছে। বস্তুজগতের ছাঁচে ঢালা জীবন থেকে মুক্তির পথ নেই। এমন বিপদের হাত থেকে শৈশবকে রক্ষা করার দায়িত্ব কি সমাজের উপর বর্তায় না? রাজনৈতিক অস্থিরতা ও হিংসার শিকার হয়ে বহু শিশুই তার স্বপ্নময় শৈশবকে ভুলতে বসেছে। তেমনই হারানো শৈশবকে পুনরুদ্ধারের প্রচেষ্টায় এবার বেহালা নূতন দল পুজো কমিটি। গণিতের ভাষায় মুক্তির অভিনব পন্থা ফুটে উঠবে দক্ষিণের নামী পুজোর মণ্ডপসজ্জায়। ৫৩তম বর্ষে তাদের ভাবনা ‘প্যারাবোলা না চাঁদের সঙ্গে কথা বলা, এবার শুধু ছক ভাঙার খেলা’।

[পুজোয় বাংলার তাঁতের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনবে ৬৬ পল্লি]

 

বিগত বছরগুলিতে থিম ভাবনায় যেভাবে পুজোর শহরে তাক লাগিয়েছে বেহালা নূতন দল, এবারেও তার অন্যথা হবে না বলে প্রত্যয়ী উদ্যোক্তারা। এবছর শিল্পী অবীন চৌধুরির সজনে গড়ে উঠছে মণ্ডপ। অবীন চৌধুরির আসল পরিচয়, তিনি এখজন প্রখ্যাত স্থপতি। থিমপুজোয় তিনি এবার প্রথম পা রাখলেন। অঙ্কের ভাষায় চিরাচরিত সমাজব্যবস্থার ছক ভাঙার কাহিনি বলেছেন তিনি। মণ্ডপসজ্জায় লোহার বাক্স সদৃশ জিনিস ব্যবহার করেছেন তিনি। তাঁর কথায়, এই বাক্সগুলির নকশা এবং বাঁধনছাড়া গঠনশৈলীই শিশুদের মুক্তির ইচ্ছাকে প্রকাশ করবে। গ্যালারির আকারে মণ্ডপ এবং বর্গাকার বাক্সগুলিকে এমনভাবে বিন্যাস করা হয়েছে যা দর্শনার্থীদের চমক দেবেই। প্রতিমা গড়ছেন শিল্পী নারায়ণ সিনহা। থিমের সঙ্গে সাযুজ্য রেখেই তৈরি হচ্ছে প্রতিমা। তাতেও থাকছে চমক। আরও একটি আকর্ষণ হল, শিল্পী অনুমপ রায়ের সুরে আবহ সংগীত।

[শিশুদের ‘আবাহন’-এর কাহিনি ফুটে উঠছে দমদম তরুণ দলের পুজোয়]

 

গত বছর মহিলাদের অন্তরমহলকে মণ্ডপসজ্জায় ফুটিয়ে তুলেছিলেন শিল্পী যোগেন চৌধুরি। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দেন আরেক শিল্পী প্রদীপ দাস। বহু পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিল এই পুজো। এবছরও sangbadpratidin.in-এ বেহালার এই কুলীন পুজোর যাবতীয় হালহকিকত জানতে পারবেন। ছবি, ভিডিওর জন্য চোখ রাখতেই হবে এখানে।

[পালকিতে চড়ে স্নানে যায় কলাবউ! শহরের পুজোয় অভিনব রীতি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে