BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শ্যামাপ্রসাদের নামে শারদ সম্মান, নয়া উদ্যোগ বিজেপির সংগঠন ‘বঙ্গপ্রয়াস’-এর

Published by: Bishakha Pal |    Posted: September 18, 2019 9:41 am|    Updated: September 18, 2019 9:43 am

An Images

রূপায়ন গঙ্গোপাধ্যায়: শারদ সম্মানেও এবার পদ্মের প্রবেশ! বারোয়ারি ও আবাসনের পুজোয় শারদ সম্মান চালু করে পথ চলা শুরু করতে চলেছে টলিপাড়ার পরিচিত একঝাঁক মুখ নিয়ে তৈরি সংগঠন ‘বঙ্গপ্রয়াস’। মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলন করে তাদের আত্মপ্রকাশের কথা ঘোষণা করছে এই সংগঠন। ক’দিন আগে দিল্লি গিয়ে বিজেপির পতাকা হাতে নিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেছিলেন যে সংগঠনের কর্মকর্তারা।

[ আরও পড়ুন: বেশি টাকা না দেওয়ায় যুবতীকে শারীরিক হেনস্তা, অভিযুক্ত অ্যাপ ক্যাব চালক ]

গত ১৮ জুলাই দিল্লির বিজেপি সর্বভারতীয় কার্যালয়ে গিয়ে পদ্ম শিবিরে যোগ দেন চলচ্চিত্র জগতের একঝাঁক শিল্পী ও কলাকুশলী। তাঁরাই সম্প্রতি গড়ে তুলেছেন ‘বঙ্গপ্রয়াস’ নামে একটি সংগঠন। লক্ষ্য বাংলার গরিমা ও স্বকীয়তাকে উচ্চে তুলে ধরা। প্রথম ধাপে তাঁরা নেমেছেন বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজোকে সামনে রেখে। বাংলার সংস্কৃতি, সাবেকিয়ানা, ঐতিহ্য এবং আভিজাত্যকে বজায় রেখে যারা দীর্ঘদিন ধরে সনাতনি বারোয়ারি পুজোর গরিমা বহন করে আসছে সেরকম ১০টি পুজোকে এবার শারদ সম্মান দিচ্ছে ‘বঙ্গপ্রয়াস’। পাশাপাশি ৩০টি আবাসনের পুজোর মধ্যে থেকে নির্বাচন করা হবে শ্রেষ্ঠ প্রতিমা, শ্রেষ্ঠ প্রতিমাশিল্পী, শ্রেষ্ঠ পরিবেশ এবং ‘আজকের দশভুজা’। প্রতিযোগিতার নাম দেওয়া হয়েছে ‘শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় শারদ সম্মান’। প্রতিযোগিতার ট্যাগ লাইন ‘পদ্ম ছাড়া কি পুজো হয়?’

[ আরও পড়ুন: পুজো উদ্বোধনে শহরে আসছেন অমিত শাহ, বার্তা দেবেন এনআরসি নিয়েও ]

মঙ্গলবার কলকাতা প্রেস ক্লাবে বঙ্গপ্রয়াসের তরফে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই শারদ সম্মানের বিষয়টির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করলেন টলিউডের একঝাঁক তারকা। ছিলেন অঞ্জনা বসু, রূপাঞ্জনা মিত্র, অনিন্দ্য বন্দ্যোপাধ্যায়, কাঞ্চনা মৈত্র, মৌমিতা গুপ্ত, সৌরভ চক্রবর্তী, অরিন্দম (লামা) হালদার ও রূপা ভট্টাচার্য। ছিলেন রুপোলি জগতের রাজ্য বিজেপির পরিচিত মুখ ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পাল, সংগীতশিল্পী পিলু ভট্টাচার্য, ভাস্কর নিরঞ্জন প্রধানের মতো বিশিষ্টরা। মঞ্চে ছিলেন রাজ্যের গেরুয়া শিবিরের অন্যতম মুখ বিশিষ্ট সাংবাদিক রন্তিদেব সেনগুপ্ত। প্রশ্ন ওঠে, তাহলে কি বকলমে গেরুয়া শিবিরই এবার পুজোয় পুরস্কার চালু করল? এবিষয়ে রন্তিদেব সেনগুপ্ত বা অঞ্জনা বসুরা অবশ্য সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কে কোন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত সেটা তাঁদের ব্যক্তিগত বিষয়। বঙ্গপ্রয়াসে যাঁরা রয়েছেন, তাঁদের সমাজে আলাদা পরিচয় রয়েছে। এটি অরাজনৈতিক সংগঠন। রন্তিদেববাবুর কথায়, “শাসকদলের নেতারাও তো বহু পুজোর সঙ্গে যুক্ত থাকেন। দুর্গাপুজোয় যুক্ত হওয়ার অধিকার সকলের আছে। এর মধ্যে রাজনীতি খোঁজা অর্থহীন।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement