Advertisement
Advertisement
Tarapith Kaushiki Amabasya

কৌশিকী অমাবস্যায় তারা মায়ের ভোগের নিয়ম বদল, কী দেওয়া হল দেবীকে?

কৌশিকী অমাবস্যায় তারাপীঠে ভক্তের ঢল।

Goddess Kali worshipped as devotees throng Tarapith on Kaushiki Amabasya । Sangbad Pratidin
Published by: Sayani Sen
  • Posted:August 26, 2022 7:10 pm
  • Updated:August 26, 2022 7:56 pm

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: কৌশিকী অমাবস্যায় তারা মায়ের ভোগের নিয়ম বদল। শুক্রবার ১২ টা ৩ মিনিটে শুরু হয় অমাবস্যা। তাই এদিন নির্দিষ্ট সময়ের একঘন্টা আগে তারা মাকে দুপুরের ভোগ দেওয়া হয়। শুক্রবার ভোর চারটের সময় তারা মাকে গঙ্গাজল দিয়ে পুন্যস্নান করানো হয়। স্বর্ণালঙ্কারে মাকে সাজানো হয়। সঙ্গে মঙ্গলারতি ও পুজো নিবেদন করা হয়। এরপরেই ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হয় মন্দিরের গর্ভগৃহের দ্বার। দু’বছর বন্ধ থাকার পরে এবার কৌশিকী অমাবস্যায় ভক্তদের জন্য তারাপীঠের মন্দির খুলেছে। তার জেরে মন্দিরে প্রায় লক্ষাধিক ভক্তের ভিড়।

এদিন তারা মায়ের ভোগে ছিল আড়াই কেজি ওজনের শোল মাছ। পুষ্পান্ন, পাঁচরকম ভাজা, পাঁচরকম তরকারি, বলি দেওয়া পাঁঠার মাংস, মাছের মাথা, পাঁচ রকম মিষ্টি ও পরমান্ন। মন্দির কমিটির সভাপতি তারাময় মুখোপাধ্যায় জানান, “এবারের কৌশিকী অমাবস্যায় ভক্তদের উৎসাহ লক্ষ্য করার মতো। সন্ধে সাতটা নাগাদ তারা মাকে ডাকের সাজে সাজানো হয়। কৌশিকী রূপে মাকে আরতি নিবেদন করা হয়। তার আগে শীতল ভোগ দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

Bhog

Advertisement

[আরও পড়ুন: মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন নিয়োগে ‘দুর্নীতি’, ফরেনসিককে দিয়ে উত্তরপত্র পরীক্ষার নির্দেশ হাই কোর্টের]

ডাকের সাজের সঙ্গে ভক্তদের দেওয়া বিশেষ স্বর্ণালঙ্কারে কৌশিকী রুপে সাজানো হয় তারামাকে। শুক্রবার যেহেতু সারারাত অমাবস্যা তাই ভক্তদের পুজোর জন্য মন্দির খোলা থাকবে। গভীর রাতে ফের মাকে ভোগ নিবেদন করা হবে। সেই সময় মাকে খিচুড়ি, কারণবারি, পাঁঠার মাংস ভোগ হিসাবে নিবেদন করা হবে। ভোর তিনটেয় এক ঘন্টা বিশ্রামের জন্য মন্দিরের দরজা বন্ধ রাখা হবে।

শনিবার যথারীতি ভোরবেলা স্নান করিয়ে ভক্তদের জন্য মন্দির খুলে দেওয়া হবে। শনিবার দুপুর ১ টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত অমাবস্যা। তাই সে সময় পর্যন্ত ভক্তদের পুজো দেওয়ার আগ্রহ বেশি থাকবে। ভিড়ের কথা মাথায় রেখে তারাপীঠ মন্দিরে নিরাপত্তা আঁটসাঁট করা হয়।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের মাস্টারস্ট্রোক, ‘লক্ষ্মী ছেলে’র মতো ছবি গত ৫ বছরে তৈরি হয়নি]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ