২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

গৌতম ব্রহ্ম: এক সপ্তাহ নয়, দু’সপ্তাহও নয়৷ আগামী বছর মহালয়ার একমাস পর দুর্গাপুজো! যা কিনা শারদোৎসবের ইতিহাসে নজিরবিহীন৷ এমনিতে মহালয়ার ছ’দিন পরই হয় দেবীর বোধন৷ সেইভাবেই বাঙালি পুজোর প্রস্তুতি নেয়৷ এবছরও মহালয়ার আগের দিন থেকে কলকাতায় পুজোর উদ্বোধন শুরু হয়েছে৷

[ আরও পড়ুন: ভক্তি ও নিষ্ঠার সঙ্গে দুর্গাপুজো কাটাতে চান? এসব কাজ ভুলেও করবেন না ]

কিন্তু সামনের বছর মহালয়ার ৩৫ দিন পর দুর্গাপুজো৷ মহালয়া ১৭ সেপ্টেম্বর৷ আর দেবীর বোধন, অর্থাৎ মহাষষ্ঠী ২২ অক্টোবর৷ পুরোহিতদের দাবি দু’টি অমাবস্যা পড়ায় মল মাস হয়ে যাবে ১৪২৭ বঙ্গাব্দের আশ্বিন মাসে৷ তাই এই সমস্যা৷ পুজো তাই সামনের বছর শরতে নয়, হেমন্তে৷ শারদীয়া উৎসবও তাই হবে হৈমন্তিক৷ এমনটাই জানালেন পুরোহিত নন্দদুলাল চক্রবর্তী৷ তাঁর মতে, ‘‘এমন ঘটনা আগে কখনও ঘটেছে বলে মনে করতে পারছি না৷’’ বিশুদ্ধসিদ্ধান্ত ও গুপ্তপ্রেস, দু’টো পঞ্জিকাই এই ব্যাপারে একমত৷

[ আরও পড়ুন: পাঠশালায় শেখানো হচ্ছে চণ্ডীপাঠ, শ্লোক শিখতে লম্বা লাইন পুরোহিতদের ]

পুরোহিতরা জানিয়েছেন, ১৭ সেপ্টেম্বর আশ্বিনের প্রথম দিন মহালয়া৷ ওই দিন অমাবস্যা পড়েছে৷ ১৬ অক্টোবর ফের অমাবস্যা৷ দুই অমাবস্যার ফাঁদে মল মাস হয়ে গিয়েছে আশ্বিন৷ ফলে কোনও শুভ কাজ এই মাসে হবে না৷ সেই কারণেই পুজো পিছিয়ে কার্তিকে চলে যাচ্ছে৷ তবে, মহালয়ার দিন নিয়ম মেনেই পিতৃতর্পণ হবে৷ শুধু বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্র ‘আশ্বিনের শারদ প্রাতে’ বলার ৩৫ দিন পর হবে অকালবোধন৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং