৩০ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ২টি যন্ত্র করোনা মোকাবিলায় ভরসা দিচ্ছে চিকিৎসকদের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 9, 2020 6:03 pm|    Updated: April 9, 2020 6:14 pm

An Images

গৌতম ব্রহ্ম: করোনা মোকাবিলায় যৌথভাবে চিকিৎসা সামগ্রী তৈরির জন্য হাত মিলিয়েছে ভারত ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড (BEL) এবং সিএসআইআর-ন্যাশনাল কেমিক্যাল ল্যাবরেটরি (NCL) পুণে। সিএসআইআর-এর সহযোগী ল্যাবরেটরি ন্যাশনাল কেমিক্যাল ল্যাবরেটরি গত এক দশক ধরে তাদের ভেঞ্চার সেন্টারের মাধ্যমে নতুন নতুন যন্ত্র উদ্ভাবন করে চলেছে এবং তাদের তৈরি নানা ধরনের সামগ্রী এখন করোনা সংক্রমণের চিকিৎসায় কাজে লাগছে। সম্প্রতি তারা যে যন্ত্র উদ্ভাবন করেছে তার মধ্যে দুটি করোনা সংক্রমণ রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করেছে। একটি হল ডিজিটাল IR থার্মোমিটার অপরটি হল অক্সিজেন এনরিচমেন্ট ইউনিট।

ডিজিটাল আই আর থার্মোমিটার ন্যাশনাল কেমিক্যাল ল্যাবরেটরি পুণের ভেঞ্চার সেন্টারের শাখা বিএমইকে হাতে ধরার মতো ডিজিটাল IR থার্মোমিটার তৈরি করেছে। মোবাইল ফোন অথবা পাওয়ার ব্যাংক দিয়ে এতে চার্জ দেওয়া যায়। এই আইআর থার্মোমিটারের নকশা বিনামূল্যে এখন সর্বত্র পাওয়া যাচ্ছে। স্থানীয় চাহিদা মেটাতে অধিক সংখ্যক উৎপাদক যাতে এটি উৎপাদন করতে পারে তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখন ভারত ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের সঙ্গে যৌথ ভাবে এই থার্মোমিটার তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিএসআইআর-ন্যাশনাল কেমিক্যাল ল্যাবরেটরি, পুণে।

[আরও পড়ুন: দুর্দিনের সঙ্গী ফেলে দেওয়া সামগ্রী, প্লাস্টিক-ছিপি দিয়ে মাস্ক তৈরি করে ফেললেন পরিবেশপ্রেমী]

আর অক্সিজেন এনরিচমেন্ট ইউনিট করোনা আক্রান্ত রোগীর জন্য খুবই উপযোগী। COVID-19 সংক্রমিত ব্যক্তিদের অন্যতম জরুরি প্রয়োজন হোল ফুসফুসে অক্সিজেনের পর্যাপ্ত জোগান। অক্সিজেনের জোগান ২১-২২ শতাংশ থেকে ৩৮-৪০ শতাংশে নিয়ে যাওয়ার কাজ করবে যন্ত্র। এই দুটি যন্ত্রই করোনা সংক্রমিত রোগীর চিকিৎসার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দুটি আবিষ্কার নিয়ে আশার আলো দেখছেন ভারতীয় চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা। এই যন্ত্রদুটি নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট প্রকাশিত করেছে কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রক।

[আরও পড়ুন: হাতের মুঠোয় করোনার দাওয়াই! গবেষকদের দাবি ঘিরে চাঞ্চল্য]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement