১০  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সরকারি দপ্তরে নিষিদ্ধ প্লাস্টিক, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের প্রশংসনীয় উদ্যোগ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 20, 2019 4:05 pm|    Updated: September 20, 2019 4:05 pm

District Administration of South Dinajpur bans plastic in govt. offices

রাজা দাস, বালুরঘাট: প্লাস্টিকমুক্ত পরিবেশ গড়তে দক্ষিণ দিনাজপুরের সরকারি দপ্তরগুলিতে নিষিদ্ধ হচ্ছে মিনারেল জলের বোতল। এই সপ্তাহের গোড়াতই নির্দেশিকা কার্যকর করতে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিলেন জেলাশাসক নিখিল নির্মল। জেলাকে পরিবেশবান্ধব গড়ে তোলার প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে ক্ষতিকর প্লাস্টিক সামগ্রী বর্জন করার নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে বলে জানান তিনি। প্লাস্টিক বন্ধে জেলা প্রশাসনের প্রাথমিক পদক্ষেপে খুশি পরিবেশপ্রেমীরা।

[আরও পড়ুন: পুনর্বাসন না দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর এলাহি জন্মদিন পালন, নর্মদা নিয়ে ফের সরব মেধা পাটেকর]

গত ১৩ সেপ্টেম্বর জেলাজুড়ে সরকারি দপ্তরগুলিতে প্লাস্টিক বর্জন করার একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। জেলাশাসকের দেওয়া ওই নির্দেশিকায় স্পষ্ট বলা হয়েছে, ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে জেলা প্রশাসনের অধীনে জেলার সরকারি কোনও স্তর বা দফতরে প্লাস্টিক মিনারেল জলের বোতল ব্যবহার করা যাবে না। জেলা প্রশাসনিক ভবনেই শুধু নয়, জেলা পরিষদ, গঙ্গারামপুর মহকুমা শাসকের দপ্তর-সহ জেলার সমস্ত সরকারি দফতরে এই নির্দেশিকা কার্যকর করতে হবে। এমনকি দপ্তরের কোনও বৈঠক, প্রশিক্ষণ কিংবা কর্মশালার ক্ষেত্রেও এই নির্দেশ বলবৎ করা হয়েছে। নির্দেশিকা কার্যকর হতেই সরকারি বিভিন্ন সভায় শুরু হয়েছে কাঁচের গ্লাস ও কাগজের কাপে জল, চা ইত্যাদি দেওয়া।
বালুরঘাটের একটি পরিবেশপ্রেমী সংস্থার সম্পাদক সরোজ কুণ্ডু বলেন, ‘ক্ষতিকর প্লাস্টিকের বিরুদ্ধে লড়াই চলছেই। এই সামগ্রীগুলি বন্ধে সাধারণ মানুষকেও সচেতন হতে হবে। জেলা প্রশাসনের প্রাথমিক উদ্যোগকে স্বাগত।’ শুধু জলের বোতলই নয়, ক্ষতিকর সব ধরনের প্লাস্টিক নির্মূল করতে তাঁরা বদ্ধপরিকর হয়ে কাজ করছেন বলে জানাচ্ছেন সরোজবাবু। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাশাসক নিখিল নির্মলের কথায়, ”পরিবেশ ভাবনা থেকেই রাজ্য সরকার ‘সেভ গ্রিন, স্টে ক্লিন’ কর্মসূচি নিয়েছে। আমরাও এই জেলায় ইকো ফ্রেন্ডলি পরিবেশ গড়ে তোলার চেষ্টা করছি। তাই পরিবেশের ক্ষতি করে এমন প্লাস্টিকজাত সামগ্রী আমরা ব্যবহার করব না বলে ঠিক করেছি। এর জন্য প্লাস্টিকের বোতলকে ব্যান করা হয়েছে সমস্ত সরকারি দপ্তরের।”

[আরও পড়ুন: ‘সত্যিই UFO ছিল’, ২ বছর আগের ভিডিও নিয়ে জোরদার দাবি মার্কিন নৌসেনার]

দক্ষিণ দিনাজপুরে দীর্ঘদিন ধরে প্লাস্টিকের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযান, প্রচার চললেও আজও এই জেলাকে প্লাস্টিকমুক্ত এলাকা হিসেবে গড়ে তোলা যায়নি। বিভিন্ন বাজারগুলিতে বারবার প্লাস্টিকের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হলেও পরিস্থিতি যেই কে সেই হয়ে রয়েছে। তেমন বিকল্প বাজারে না থাকায় মানুষ সচেতন অথবা অসচেতন ভাবেই প্লাস্টিকের ব্যবহার করে ফেলছে। জেলার সরকারি দপ্তরে প্লাস্টিকের বোতল ব্যবহার লক্ষ্য করা যায় কর্মীদের মধ্যে। এমনকী সরকারি সভা বা কর্মসূচিগুলোতেও প্লাস্টিকের বোতলে জল সরবরাহ স্বাভাবিক ব্যাপার। প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরেই সরব জেলার পরিবেশ কর্মীরা। এই পরিস্থিতিতে জেলা প্রশাসনের এমন একটি পরিলল্পনা প্রশংসা কুড়িয়েছে পরিবেশ সচেতক থেকে সাধারণ মানুষের কাছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে