BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ইতিহাসে প্রথম, মানব মহাকাশযানের নেতৃত্বে মহিলা বিজ্ঞানীকে বাছল NASA

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 13, 2020 1:18 pm|    Updated: June 13, 2020 2:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহাকাশে হিউম্যান স্পেসফ্লাইটের নেতৃত্বে এবার একজন মহিলা। শুক্রবার নাসার (NASA) তরফে এই খবর প্রকাশ করা হয়েছে। ওই বিজ্ঞানীর নাম ক্যাথি লুয়েডার্স (Kathy Lueders)। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে ২০২৪ সালে চাঁদে যাওয়ার তোড়জোড় শুরু করেছে তারা। সেই মিশনেরই নেতৃত্ব দেবেন ক্যাথি। নাসার প্রধান জিম ব্রিডেনস্টাইন টুইটারে এই খবর ঘোষণা করে জানিয়েছেন, “ক্যাসি লুয়েডার্সকে নাসার হিউম্যান এক্সপ্লোরেশন অ্যান্ড অপারেশনস মিশন ডিরেক্টরেটকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য নির্বাচন করা হয়েছে।”

তিনি আরও জানিয়েছেন, ক্যাথি কর্মার্শিয়াল ক্রু এবং কমার্শিয়াল কার্গো প্রোগ্রাম, উভয়ই সফলভাবে পরিচালনা করতে সক্ষম। তাই ২০২৪ সালে চাঁদে মহাকাশচারীদের যে দলটি যাবে, তার নেতৃত্বের জন্য ক্যাথিকে বেছে নেওয়া হয়েছে। ১৯৯২ সালে নাসায় যোগ দেন ক্যাথি লুয়েডার্স। ৩০ মে তিনি একটি স্পেসএক্স রকেটে দু’জন মহাকাশচারীকে মহাকাশ স্টেশনে যাত্রার তদারকি করেন। এটি ছিল তাঁর প্রথম মহাকাশের কমার্শিয়াল ফ্লাইট। তিনি বহু বছর ধরে স্পেসএক্স, বোয়িং এবং অন্যান্য সংস্থা, যারা নাসার সঙ্গে অংশীদারিত্ব করছে তার পরীক্ষামূলক প্রোগ্রামের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। মানুষকে নিরাপদে মহাশূন্যে নিয়ে যেতে পারে এমন স্পেস ক্যাপসুলগুলির সম্পূর্ণ পরীক্ষামূলক কর্মসূচির দায়িত্বে ছিলেন তিনি। লুয়েডার্স বলেছেন, এই সম্মান পেয়ে তিনি অভিভূত।

[ আরও পড়ুন: আকাশেই তৈরি হবে ‘ring of fire’, ২১ জুন বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণের সাক্ষী থাকবে ভারত ]

নাসার জন্য বাণিজ্যিক মহাকাশ বিমান তৈরির কর্মসূচি এক দশক আগে শুরু হয়। তখন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ছিলেন বারাক ওবামা। তার আগে রকেট এবং মহাকাশ যানের নকশা ও নির্মাণ, সব কাজই করত নাসা। ২০২৪ সালে নাসার ভারী এসএলএস রকেট এবং ওরিওন ক্যাপসুল ব্যবহার করে প্রথম মহিলা-সহ দুটি মহাকাশচারিকে চাঁদে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে কোন সংস্থা মুন ল্যান্ডার তৈরি করবে সে সম্পর্কে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি নাসা।

[ আরও পড়ুন: করোনা রুখতে বজায় থাকছে সামাজিক দূরত্ব? বলে দেবে খড়্গপুর আইআইটির তৈরি অত্যাধুনিক যন্ত্র ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement