BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

দিল্লির চিড়িয়াখানায় মৃত্যু বাঘিনীর, করোনা সন্দেহে নমুনা গেল পরীক্ষার জন্য

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 24, 2020 8:40 pm|    Updated: April 24, 2020 8:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিডনি বিকল হয়ে দিল্লির চিড়িয়াখানায় মৃত ১৪ বছর বয়সের একটি বাঘিনী। জানা যায়, মৃত বাঘিনীর নাম কল্পনা। বুধবার সন্ধ্যায় মারা যায় ১৪ বছর বয়সী এই বাঘিনী। তবে করোনা আক্রান্ত হয়ে বাঘটির মৃত্যু হয়েছে কিনা জানতে বরেলির ল্যাবে তার নমুনা পাঠানো হয়।

কয়েকদিন আগেই মার্কিন মুলুকে এক বাঘিনীর করোনার সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে। এক্ষেত্রেও কল্পনা করোনা আক্রান্ত হয়েছিল কিনা তা জানতে ইতিমধ্যেই তার নমুনা বরেলির ল্যাবে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। বুধবার মৃত বাঘিনীর সৎকারের কাজ সম্পন্ন হয় বৃহস্পতিবার। মানুষের সঙ্গে ওই বাঘিনীর যাতে বেশি সংস্পর্শ না হয় সেজন্য কল্পনার সৎকারের কাজে বনদফতরের হাতেগোনা কয়েকজন মাত্র আধিকারিক হাজির ছিলেন। এসেছিলেন চিড়িয়াখানার অল্প কয়েকজন। তবে যাঁরা সেদিন উপস্থিত ছিলেন তাঁদের সকলকেই সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। ময়নাতদন্তও হয়েছে ওই বাঘিনীর। রিপোর্টে জানা গিয়েছে, মৃত্যুর আগে ভীষণ ভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছিল বাঘিনী কল্পনা। তার শরীরে উচ্চ মাত্রায় ক্রিয়েটিনিন পাওয়া গিয়েছে তার শরীরে।

[আরও পড়ুন:করোনা আক্রান্ত পোষ্য কি সংক্রমণ ছড়াতে পারে আপনার শরীরেও? জানুন বিশেষজ্ঞদের মত]

পরিবেশ মন্ত্রকের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, “করোনা পরীক্ষার জন্য বরেলিতে ইন্ডিয়ান ভেটেরেনারি রিসার্চ ইন্সটিটিউটে পাঠানো হয়েছে বাঘিনীর নমুনা। পাশাপাশি করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় সৎকারের যে গাইডলাইন প্রকাশ করা হয়েছে তা মেনেই কল্পনার শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়েছে।” তবে কেন্দ্রীয় চিড়িয়াখানা পর্ষদের প্রাক্তন সদস্য এবং সেক্রেটারি ডিএন সিং অবশ্য বাঘিনীর মৃত্যুর জন্য চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের গাফিলতিকেই দায়ি করেছেন। তাঁর কথায়, “সম্ভবত বাঘিনীটি ডিহাইড্রেশনের জেরে মারা গিয়েছে। জব্বলপুরের এক সিনিয়র ভেটেরেনারি ডাক্তার বলেছিলেন বাঘিনীকে যেন স্যালাইন দেওয়া হয়। কিন্তু চিড়িয়াখানার কর্মীরা তা করেননি। পাশাপাশি কল্পনার সৎকারের সময় কোনও উচ্চপদস্থ আধিকারিক হাজির ছিলেন না। এটা নিয়ম বিরুদ্ধ।”

[আরও পড়ুন:‘র‍্যাপিড টেস্ট কিটে কোনও সমস্যা নেই’, অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি চিনা প্রস্তুতকারী সংস্থার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement