১১ মাঘ  ১৪২৬  শনিবার ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১১ মাঘ  ১৪২৬  শনিবার ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাজারও সতর্কতা, বিধিনিষেধ, প্রচার। তা সত্ত্বেও মানুষ-বন্যপ্রাণ সংঘাত বাড়ছে বই কমছে না। এখনও লোকালয়ে ঢুকে পড়া বিভিন্ন পশুর উপর হামলার ঘটনা চোখে পড়ে প্রায়শয়ই। জঙ্গলে যারা অন্যদের কাছের ভীতির কারণ, তারাই মানুষের জগতে এসে অসহায়তার শিকার। কিন্তু প্রকৃতি তো সকলের বাসযোগ্য। নইলে ভারসাম্য বজায় থাকে না। তাই বন্যপ্রাণ সংরক্ষণে জনগণকে সচেতন করতে আরও এক অভিনব উদ্যোগ নিল রাজ্য সরকারের বনদপ্তর এবং ব্যঘ্র সংরক্ষণ সংস্থা ‘শের’। বন্যপ্রাণ সংরক্ষণের বার্তা সাজানো প্রচারের গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পড়ল বিভিন্ন বনাঞ্চলে। যেখান থেকে মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচার করা হবে। এবারের প্রচারে মূলত হাতি সংরক্ষণে জোর দেওয়া হয়েছে।

forest-car1

বনদপ্তরের তরফে একটি গাড়িকে প্রচারকাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। রাজ্যের ১০ টি বনাঞ্চলের বিভিন্ন জায়গায় আগামী চার মাস ধরে ঘুরবে। সেখানে থাকবে প্রোজেক্টর, স্ক্রিন, মাইক্রোফোন। তাতে মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে দেখানো হবে, কীভাবে সম্প্রতি জঙ্গল সাফ হয়ে যাওয়ার কারণে মানুষ আর বন্যপ্রাণের মধ্যে সংঘাত বাড়ছে। যার শিকার হচ্ছে উভয়েই। এই টানাপোড়েন থেকে বেরিয়ে কীভাবে সহাবস্থান সম্ভব, তাও দেখানো হবে ওই প্রজেক্টরের মাধ্যমে। সেইসঙ্গে চলবে ঘোষণাও।

[আরও পড়ুন: দেশের প্রথম ‘ম্যানগ্রোভ চিড়িয়াখানা’ গড়ে উঠবে সুন্দরবনে, ঘোষণা বনমন্ত্রীর]

‘শের’এর প্রতিষ্ঠাতা জয়দীপ কুণ্ডু জানিয়েছেন, বন্যপ্রাণ সংরক্ষণে যতক্ষণ না মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে, ততক্ষণ কেউই খুব ভালভাবে থাকতে পারবে না। তাই প্রচারের পর প্রচার তাঁরা চালিয়ে যাবেন। আর জঙ্গল লাগোয়া এলাকার মানুষজনের মধ্যেই সচেতনতা বেশি জরুরি।তাই প্রচারের গাড়ি থেকে পোস্টার, স্টিকার, লিফলেটও বিলি করা হবে। যা তাঁদের চোখের সামনে থাকলেও কিছুটা কাজ হতে পারে বলে আশা বন্যপ্রাণ সংরক্ষকদের। ইতিমধ্যেই পশ্চিম মেদিনীপুরের কয়েকটি বনাঞ্চলের স্কুলগুলিতে ঘুরে পড়ুয়াদের দিয়ে বোঝানোর কাজ শুরু হয়েছে। 

[আরও পড়ুন: চলতি মাসে তিন ঘণ্টা ধরে সূর্যগ্রহণের সাক্ষী থাকবে কলকাতা, জেনে নিন দিনক্ষণ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং