১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সরে গেল দশ ক্লাব, ৪৮ ঘণ্টাতেই মৃত্যুঘণ্টা ইউরোপিয়ান সুপার লিগের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 22, 2021 12:35 pm|    Updated: April 22, 2021 1:37 pm

10 teams withdrawn from projected European Super league | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভূমিষ্ঠ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই মৃত্যু ঘোষণা হয়ে গেল নতুন করে গজিয়ে ওঠা ইউরোপিয়ান সুপার লিগের (European Super League)। রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা ছাড়া ইউরোপের বিদ্রোহী দশটি ক্লাব সুপার লিগ থেকে বেরিয়ে এল। ফলে মাত্র দুটি ক্লাব নিয়ে যে আর সুপার লিগ হওয়া সম্ভব নয়, বুঝে গিয়েছেন সবাই। তার উপর এদিন সবার শেষে সুপার লিগ থেকে বেরিয়ে আসা জুভেন্তাসের (Juventus) সভাপতি আন্দ্রেয়া আনেয়েল্লি যিনি আবার সুপার লিগে সহ-সভাপতিও ছিলেন। তিনি সরকারি ভাবে বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেন, সুপার লিগ করা আর সম্ভব নয়।

অনেকে মনে করছেন, প্রথমে উয়েফা এবং পরে ফিফা সুপার লিগের ব্যপারটা ভাল চোখে দেখেনি বলেই সুপার লিগের পরিকল্পনা থেকে ১০টি ক্লাবকে পিছু হঠতে হল। অনেকে আবার বলছেন, শুধুমাত্র অর্থের ঝনঝনানির কাছে ক্লাব ম্যানেজমেন্টের এভাবে মাথা নোয়ানো মেনে নিতে পারেননি সমর্থকরা। আর তাই ক্ষোভ প্রকাশ করতে রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। এসব দেখেই ক্লাবগুলো সিদ্ধান্ত নেয়, সুপার লিগ নয। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগেই (Uefa Champions League) খেলতে চায় তারা।

[আরও পড়ুন: চিকিৎসার জন্য কলকাতায় আসা বাংলাদেশি ফুটবলারের পাশে প্রীতম কোটাল]

প্রথমে চেলসি, তারপর ম্যাঞ্চেস্টার সিটি (Manchestar City)। পরে এক এক করে মঙ্গলবার বেশি রাতে সুপার লিগে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করে ইংল্যান্ডের বাকি চারটি দলও সরে দাঁড়ায়। লিভারপুলের মালিক জন ডব্লিউ হেনরি এক ভিডিও বার্তায় দলের সমর্থকদের কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষমা চেয়ে নেন। জুভেন্তাস সভাপতি আন্দ্রেয়া আনেয়েল্লির মতো জন ডব্লিউ হেনরিও ছিলেন প্রস্তাবিত সুপার লিগের অন্যতম সহ-সভাপতি। তার আগেই অবশ্য আনেয়েল্লি বলেছেন, “দশটি ক্লাব বেরিয়ে যাওয়ার পর যে পরিস্থিতি দাঁড়িয়েছে, তাতে সুপার লিগ আয়োজন করা কিছুতেই সম্ভব নয়।”

মঙ্গলবার বেশি রাতে ম্যাঞ্চেস্টার সিটি, ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল, চেলসি, আর্সেনাল ও টটেনহ্যামের পাশাপাশি এদিন ইন্টার মিলান এবং এসি মিলানও জানিয়ে দেয়, তারা আর সুপার লিগে নেই। পরে একই সিদ্ধান্তে জানিয়ে দিয়েছে জুভেন্তাসও। সুপার লিগ থেকে হয়তো শেষ মুহূর্তে সরে দাঁড়িয়েছেন, কিন্তু আনেয়েল্লি এখনও বিশ্বাস করেন, ফুটবলের উন্নতির জন্যই তাঁরা সুপার লিগ করতে চেয়েছিলেন।

[আরও পড়ুন: IFA সচিবের পদত্যাগপত্র প্রত্যাহারের পরও কর্মীদের বেতন নিয়ে সংশয় অব্যাহত]

১০ টি ক্লাব সুপার লিগ থেকে সরে দাঁড়ানোর পর আর মুখ খোলেননি রিয়াল মাদ্রিদ তথা সুপার লিগের সভাপতি পেরেজ। তবে গতকাল যখন ইপিএলের ক্লাবগুলো এক এক করে সরে দাঁড়াচ্ছিল, তখনও পেরেজ নিশ্চিত ছিলেন, সুপার লিগ হবে। এক ধাপ এগিয়ে গিয়ে তিনি বলেন, “সবাই চুক্তির মধ্যেই রয়েছে। একেবারে শেষের দিকে বায়ার্ন মিউনিখ এবং পিএসজি এসে ঠিক যোগ দেবে।” এখন সেই রিয়াল মাদ্রিদ তথা সুপার লিগ প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ কী বলেন, দেখার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement