BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

যৌন হেনস্তার অভিযোগে নতুন করে বিপাকে বিসিসিআই সিইও

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 18, 2019 7:13 pm|    Updated: April 18, 2019 7:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: #MeToo মুভমেন্টে যখন উত্তাল হয়েছিল গোটা দেশ, তখন অভিযুক্তের তালিকায় রাহুল জোহরির নাম চকমে দিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট মহলকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছিল নিন্দার ঝড়। কিন্তু ক্লিন চিট পেয়ে যান তিনি। এসব সত্ত্বেও এখনও দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থায় বহাল তবিয়তে রয়েছেন তিনি। আর এতেই আপত্তি তুলে নতুন করে আদালতের দ্বারস্থ হলেন এক মহিলা আইনজীবী।

[আরও পড়ুন: তিন নয়, বিশ্বকাপে স্ট্যান্ড-বাই হিসেবে সুযোগ পেলেন আরও দুই ক্রিকেটার]

আদালতে জমা দেওয়া আবেদনে আইনজীবী রশমী নায়ার জানিয়েছেন, জোহরির কর্মজীবন বেশ রঙিন ছিল। যেখানেই তিনি কাজ করেছেন, সেখানেই তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু কখনও লোভ দেখিয়ে তো কখনও হুমকি দিয়ে সমস্ত অভিযোগই নিজের গা থেকে ঝেরে ফেলে দিতে সফল হয়েছেন রাহুল। এবং বেশ দক্ষ হাতেই সে কাজ করে এসেছেন তিনি। বিসিসিআইয়ে প্রবেশ করেও তার পরিবর্তন হয়নি। রশমী নায়ার আরও প্রশ্ন তুলেছেন, কেন এই বিষয়টি সদ্য-নিযুক্ত ওমবুডসম্যান ডিকে জৈনকে দেওয়া হয়নি? কেন এখনও ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সিইও পদে রয়েছেন তিনি? 

তিনজন মহিলা জোহরির বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন। যাঁদের মধ্যে পরে একজন সরে দাঁড়ান। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলে। কিন্তু বিচারকদের মধ্যে মতানৈক্য থাকায় যৌন হেনস্তার মামলায় ক্লিন চিট পেয়ে যান জোহরি। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তিন বিচারক রাকেশ শর্মা এবং বরখা সিং বীনা গৌড়ার কমিটি গঠন করা হয়েছিল। প্রথম দুজন তাঁকে ক্লিন চিট দিয়ে দেন। তবে বীন গৌড়ার বিষয়টি নিয়ে আপত্তি ছিল। তাঁর মতে, বিসিসিআইয়ের সিইও পদে থেকে জোহরি যা কাজ করেছেন তা মেনে নেওয়া যায় না। কিন্তু সে যাত্রায় পার পেয়ে গেলেও নতুন করে তাঁর বিরুদ্ধে পিটিশন জমা পড়ায় ফের বিপাকে সিইও।

[আরও পড়ুন: পুরুষদের জন্য বিশেষ গয়না আনল সেনকো গোল্ড, উদ্বোধনে নাইটরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement